ভুয়া ছবি দিয়ে পুলিশের বদনাম করা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃভুয়া ছবি ব্যবহার করে পুলিশের বদনাম করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের এন্টি টেররিজমের এডিশনাল ডিআইজি মো. মনিরুজ্জামান। 

শুক্রবার (২৭ মার্চ) রাতে ফেসবুকে নিজের ব্যাক্তিগত আইডিতে এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট দিয়েছেন তিনি।

ক্রাইমফোকাস.নেট পাঠকদের জন্য মো. মনিরুজ্জামানের সেই ফেসবুক পোস্টটি হুবহু নিচে তুলে ধরা হলো:

‘ফেসবুকে, মেসেন্জারে বা অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একশ্রেণির ব্যক্তিবর্গ বুঝে বা না বুঝে করোনা মোকাবেলায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়ীত্বরত পুলিশ বা অন্যান্য বাহিনীর সদস্য কতৃক নিরীহ পথচারীদের প্রহার বা হয়রানির দৃশ্য আপলোড করছেন।
এ রকম একটি পোস্ট একজন উর্দ্ধতন সরকারি কর্মকর্তার কাছ থেকে অবহিত হয়ে তাৎক্ষনিক বিশ্লেষণ জানা যায় ২০১৯ সালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত একটি ছবি ব্যবহার করে করোনা কেন্দ্রিক সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার কাজে নিয়োজিত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা হচ্ছে।

এটি একটি দন্ডযোগ্য অপরাধ এবং জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়ীত্বরত পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনীকে জনসম্মুখে হেয় করার অপচেষ্টা,যা অত্যন্ত নিন্দনীয়।

এ ধরনের পোস্ট যথাযথ সতর্কতা ব্যতীত লাইক,কমেন্ট বা শেয়ার করে বিভ্রান্তি না ছড়ানোর জন্য দায়ীত্বশীল পর্যায় থেকে বারংবার বলা হচ্ছে।সকলকে সুনাগরিকের পরিচয় দিয়ে দায়ীত্বশীল ভুমিকা পালনের জন্য ব্যক্তিগত অনুরোধ রইল।

বাংলাদেশ পুলিশ সংশ্লিষ্ট বাহিনী ও কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে এই দুঃসময় অতিক্রমের জন্য জানবাজি দিয়ে লড়ছে।

তাদের এই অনন্য পেশাদারিত্বে দেশের মানুষ ভূয়সী প্রশংসা করেছে।সবাই এক নয়,এসব ভাল কাজ বা কাজের প্রশংসা দেখে কারো যদি শরীর জ্বলে জ্বলুক,কিন্তু তাই বলে আইন অমান্য করে বিভ্রান্তি ছড়াবেন আর পুলিশ বসেবসে দেখবে এটি ভাববার কোন কারন নেই।

পুলিশ একটি পেশাদার বাহিনী,পেশাদারিত্ব নিয়েই কাজ করছে।কোথাও ব্যত্যয় হয়ে থাকলে,বাড়াবাড়ি বা অসংগতি চোখে পড়লে সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কতৃপক্ষকে অবহিত করুন।মোটামুটি নিশ্চিত থাকতে পারেন অভিযোগ সত্য প্রমানিত হলে যথায়থ ব্যবস্হা হবে।ব্যক্তির দায় বাহিনী নেয়না,নিবেওনা
আমরা বিভ্রান্তি এড়িয়ে চলি,সরকারী ঘোষণা মেনে ঘরে থাকি,যারা এই কঠিন সময়ে গুরুদায়ীত্ব পালন করতে গিয়ে নিজের জীবন,প্রিয়জনদের স্বার্থ উপেক্ষা করে অনন্য পেশাদারিত্ব প্রদর্শন করছেন তাদের কে কৃতজ্ঞতা জানাতে না পারলেও অহেতুক হেয় না করি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here