প্রবাসী স্বামীকে রেখে বাবার বাড়ি চলে গেলেন স্ত্রী!

ফেনী প্রতিনিধি:ফেনীর ছাগলনাইয়ায় গত কয়েকদিনে ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে ৪৮৫ জন প্রবাসী এলাকায় এলেও ২৫০ জন প্রশাসনের নজরে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও বাকিদের খোঁজ মিলছে না। এদিকে করোনা আতঙ্কে প্রবাসী স্বামীকে রেখে বাবার বাড়ি চলে গেছেন স্ত্রী!

জানা গেছে, প্রবাসীরা বাড়িতে আসার পরদিন থেকে বিভিন্ন এলাকায় প্রকাশ্যে হাট-বাজারসহ লোকালয়ে ঘোরাঘুরি ও মেলামেশার কারণে এলাকাবাসীর মধ্যে উদ্বেগ দেখা গেছে। এই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এলাকায় মাইকিং করা হয়েছিল। গত ৪৮ ঘণ্টায় পুলিশ, জনপ্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি তৎপরতায় বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ২৫০ জনকে হোম কোয়ান্টাইনে রাখা সম্ভব হয়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

বাকিদের খোঁজ নেয়া হচ্ছে। এরমধ্যে ইতালি,স্পেন, জার্মানি, কুয়েত, সৌদিআরব, কাতার, আবুদাবি, ভারতের থেকে আসা প্রবাসী বেশি বলে জানা গেছে। তবে তাদের মধ্যে আক্রান্ত রয়েছেন কিনা তা জানা যায়নি। এদিকে করোনাভাইরাস আতঙ্কে ইউরোপের একটি দেশ থেকে ছাগলনাইয়ায় আসা প্রবাসী স্বামীকে রেখে স্ত্রী বাবার বাড়িতে চলে যাওয়ার খবর দিয়েছেন ছাগলনাইয়া থানার ওসি মেজবাহ উদ্দিন আহম্মদ। তবে তিনি পরিচয় জানাতে রাজি হননি।

দুপুরে ছাগলনাইয়া ইউএনও সাজিয়া তাহেরের সভাপতিত্বে করোনাভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকার লক্ষ্যে জনসচেনতা ও করণীয় ঠিক করতে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকদের নিয়ে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ছাগলনাইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল। অন্যদের মধ্যে ছাগলনাইয়া পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ মোস্তফা, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শিহাব উদ্দিন রানা, ওসি মেজবাহ উদ্দিন আহম্মদ, ভাইস চেয়ারম্যান এনামুল হক মজুমদার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিবি জুলেখা শিল্পি, বিআরডিবির চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান মুজিব, পাঠাননগর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল হায়দার চৌধুরী জুয়েল, রাধানগর ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হক মাহবুব, মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যান গরীব শাহ হোসেন বাদশা, উপজেলা জাসদের সভাপতি আবদুল হাই, ছাগলনাইয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল হাসান বক্তব্য রাখেন। সমাবেশে পাঁচটি ইউপি ও একটি পৌরসভার মেয়র, চেয়ারম্যান, সদস্য প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল চৌধুরী বলেন, কষ্ট হলেও নিজের ও দেশের মানুষের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে প্রবাসী ভাইদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে, উপজেলায় ওয়াজ মাহফিল, বিয়েসহ সবধরনের সভা-সমাবেশ না করতে উপজেলাবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

প্রয়োজনের অতিরিক্ত খাদ্যদ্রব্য না কিনতে উপজেলাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে এ বিষয়ে প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের নজরদারির বিষয়ে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here