নিজেকে বিলিয়ে দিলেন সার্জেন্ট সামান

নিউজ ডেস্ক :মানুষটির নাম সার্জেন্ট সামান কুনান। থাইল্যান্ডের সেই গুহায় অক্সিজেনের ট্যাংক পৌঁছে দিয়ে আসতে ঢোকার আগে শেষবারের মত ক্যামেরায় ধরা পড়েছিলেন তিনি। থাইল্যান্ডের সাবেক থাই নেভি সিল সদস্য সামান অবসরে চলে গিয়েছিলেন বহু আগেই। কিন্তু যখনই সংবাদ পেলেন কিশোর ফুটবলাররা উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ চিয়াই রাইয়ের এ গুহাটিতে আটকে পড়েছে, স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করতে ছুটে এলেন তিনি!

গত বৃহষ্পতিবার বিকেলে ক্রমেই কমে যাচ্ছিল গুহার ভেতরে অক্সিজেনের পরিমাণ। সামান জানতেন কত বড় ঝুঁকি নিতে যাচ্ছেন তিনি। কিন্তু কর্তব্যের প্রয়োজনটি যে সবার আগে!

অক্সিজেন ট্যাংক নিয়ে ঢুকলেন তিনি গুহার ভেতর, কিন্তু কিশোরদের কাছে অক্সিজেন পৌঁছে দিয়ে আর ফেরা হলো না তার। অক্সিজেনের চাপ ক্রমাগত কমতে কমতে একসময় পানির নীচেই অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু ঘটে তার। অ্যা সোলজার ব্রেভলি ডায়েড ইন হারনেস! জীবনের শেষ অক্সিজেনটুকু এই কিশোরদের বাঁচার জন্য দিয়ে গেল মানুষটি!

আমরা দেবদূত খুঁজি আকাশের দিকে তাকিয়ে, আমাদের কল্পনার দেবদূতেরা বাস করেন স্বর্গে। অথচ আমাদের আশেপাশে যে কত অসংখ্য সামান কুনানেরা অসামান্য সাহসে স্রেফ আর্তমানবতার ডাকে সাড়া দিয়ে হাসিমুখে নিজের জীবন উৎসর্গ করেন এভাবে, টেরও পাই না আমরা! আমাদের মর্ত্যের দেবদূতেরা ঠিকই তাদের দায়িত্ব পালন করে হারিয়ে যান চুপচাপ, নিঃশব্দে!

প্রিয় সামান কুনান, যে মানুষের জন্য আপনি আপনার জীবনটি উৎসর্গ করে গেলেন, সেই মানুষেরা আপনাকে চিরদিন মনে রাখবে, শ্রদ্ধায়, ভালবাসায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here