জবি ও চবিতে সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় রাবিসাসের নিন্দা

রাবি প্রতিনিধি:পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) ও চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) কর্মরত সাংবাদিককের উপর ছাত্রলীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (রাবিসাস)। একই সঙ্গে দ্রুততম সময়ের মধ্যে হামলাকারীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়েছে। সোমবার দুপুরে এক যৌথ বিবৃতিতে রাবিসাসের সভাপতি মুস্তাফিজ রনি ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জাহিদ এ দাবি জানান।

যৌথ বিবৃতিতে মুস্তাফিজ রনি ও জহিরুল ইসলাম জাহিদ বলেন, ‘দেশের সাংবাদিকতায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে ক্যাম্পাস সাংবাদিকতা। পেশাদারিত্ব ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে ক্যাম্পাসগুলোতে কর্মরত সংবাদকর্মীদের ভূমিকা প্রশংসনীয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের চার সাংবাদিক মারধর এবং চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সাংবাদিককে প্রকাশ্যে হুমকি দেওয়ার ঘটনাকে ঘৃণ্য এবং বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা চর্চার ক্ষেত্রে অন্তরায় উল্লেখ করে অবিলম্বে হামলাকারীদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।’

উল্লেখ্য, রোববার জবিতে নিপীড়ণবিরোধী প্রগতিশীল ছাত্রজোটের বিক্ষোভ মিছিলে অন্তত ১৫জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এ সময় সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে জবি সাংবাদিক সমিতির চার সদস্য হামলার শিকার হন। এর মধ্যে আহত অবস্থায় সমকালের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি লতিফুল ইসলাম ও আমার সংবাদের আসলাম অর্ককে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়াও জবি সাংবাদিক সমিতির সহ-সভাপতি সামি সরকার, ইত্তেফাকের আহসান জোবায়ের ও ডেইলি সানের কবির হোসেনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

একইদিন অনলাইন ভিত্তিক পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কম এর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) প্রতিনিধি আব্দুল্লাহ রাকিবকে কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালে ছাত্রলীগের কর্মী আব্দুল্লাহ রাকিব শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। সাব্বির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। এরপর আব্দুল্লাহ রাকিবকে প্রকাশ্যে জবাই করে হত্যার হুমকি দেয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক (বহিষ্কৃত) মিজানুর রহমান বিপুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here