জাপানের ইতিহাস গড়ার সুযোগ

স্পোর্টস ডেস্ক:বিশ্বকাপের ইতিহাসে তৃতীয়বারের মত শেষ ষোলতে উঠেছে এশিয়ান পরাশক্তি জাপান। এর আগের দুইবার এই শেষ ষোলতেই থেমেছে এশিয়ার পরাশক্তিদের বিশ্বকাপ অভিযান। এবারে নতুন ইতিহাস লিখতে হলে তাদের সামনে শক্তিশালী বেলজিয়াম।

এর আগে ২০০২ ও ২০১০ সালের বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে খেলেছিল জাপান। প্রথমবার তুরষ্কের বিপক্ষে ১-০ ও শেষবার প্যারাগুয়ের বিপক্ষে টাইব্রেকারে হেরে শেষ হয় তাদের বিশ্বকাপ যাত্রা। এবারে তাদের প্রতিপক্ষ আরও বেশি শক্তিশালী বেলজিয়াম।

তবু নিজ দলের খেলোয়াড়দের প্রতি পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে জাপান কোচের। অবশ্য তারা অনুপ্রেরণা নিতে পারে রাশিয়ানদের কাছ থেকে। নক আউট পর্বে স্বাগতিকরা বাড়ি ফেরার টিকেট ধরিয়ে দিয়েছে ২০১০ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্পেনকে।

দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচকে সামনে রেখে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে একাদশে ৬টি পরিবর্তন এনেছিলেন জাপানের কোচ। এতোগুলো পরিবর্তনের পেছনে তার যুক্তি একটাই ছিল যাতে করে শেষ ষোলর ম্যাচে ক্লান্তিহীন উজ্জীবিত খেলোয়াড়দের মাঠে নামাতে পারেন তিনি। কারণ আগের দুইবার শেষ ষোলর ম্যাচে ক্লান্ত-শ্রান্ত ফুটবলারদের নিয়ে খেলায় শেষ ষোলর বাঁধা পার করতে পারেনি জাপান।

ম্যাচের আগে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে নিশিনো বলেন, আমরা এর আগেও দুইবার শেষ ষোলতে খেলেছি। কিন্তু সেই দুইবারই খেলোয়াড়রা প্রথম রাউন্ড শেষে ছিল ক্লান্ত, শ্রান্ত। ফলে নিজেদের সেরাটা তারা দিতে পারেননি। এবার আমাদের অবস্থা এমন নয়। আমাদের খেলোয়াড়রা এখনো ক্লান্ত নয়, নতুন ইতিহাস গড়তে তারা উজ্জীবিত।

জাপান

নিশিনো আরও যোগ করেন, বেলজিয়ামের বিপক্ষে নতুন ইতিহাস রচনা খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফের সকলে মুখিয়ে রয়েছে। শেষ ষোলতে এটি আমাদের তৃতীয় অংশগ্রহণ এবং আমরা পরিকল্পনার দিক দিয়েও অনেক এগিয়ে রয়েছি। আমার মতে বেলজিয়ামের মতোই আমাদের মানসিকতা। তবে বিশ্বের তৃতীয় সেরা দল, যেখানে আমরা রয়েছি ৬১ নম্বরে। তাই তাদের বিপক্ষে ম্যাচটি মোটেও সহজভাবে নেয়া যাবে না।

বেলজিয়াম

অপরদিকে বেলজিয়ামের জন্য এবারের বিশ্বকাপ অনেক বড় স্বপ্নের। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্য অর্জনে ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়েছে তারা। প্রথম পর্বে নিজেদের শক্তিমত্তা বেশ ভালোভাবেই জানান দিয়েছে প্রতিপক্ষদের। তাই জাপান তাদের জন্য খুব একটা বড় প্রতিপক্ষ হবার কথা নয়। এছাড়া প্রতিটি খেলোয়াড়ই রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে।

বেলজিয়াম একাদশঃ কুর্তোইয়া, ভারটঙ্গেন, ভিনসেন্ট কোম্পানি, অ্যালডারউইয়ারল্ড, উইটসেল, ডি ব্রুইন, ক্যারাসকো, মারটিন্স, হ্যাজারড, লুকাকু, মিউনিয়ার

জাপান একাদশঃ কাওয়াশিমা, সাকাই, ইউশিদা, সোজি, নাগাটোমো, হাসেবে, শিবাসাকি, হারাগুছি, কাগাওয়া, ইনুই, ওসাকো

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here