কাদের বললেন রাষ্ট্রদ্রোহী, আইনমন্ত্রী বললেন ছোট ঘটনা রাষ্ট্রদ্রোহী হয় না!

নিজস্ব প্রতিনিধি:সংখ্যালঘুদের নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা অভিযোগকারী প্রিয়া সাহা প্রসঙ্গে পরষ্পর বিরোধী মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

প্রিয়া সাহার বক্তব্যকে সেতুমন্ত্রী রাষ্ট্রদ্রোহী বলে উল্লেখ করেছেন। কিন্তু আইনমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে বলেছেন, ছোট ঘটনা রাষ্ট্রদ্রোহী হয় না।

রোববার (২১ জুলাই) পৃথক দুই অনুষ্ঠানে এমন পরষ্পর বিরোধী মন্তব্য করেন তারা।

প্রিয়া সাহার বক্তব্যকে রাষ্ট্রদ্রোহী উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে আপাতত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হবে না। তিনি (প্রিয়া সাহা) কেন এমন কথা বলেছেন। আগে তিনি দেশে ফিরে এসে তার বিস্তারিত তথ্য জনসম্মুখে পেশ করলে তারপর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আইনমন্ত্রী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী আমি তাদেরকে অবগতি করেছি তারা এখন কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, একজন ব্যারিস্টার মামলা করতে গিয়েছিল আইনমন্ত্রী আমাকে অবগত করেছেন তার মামলা গ্রহণ করা হয়নি। রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা রাষ্ট্রের অনুমতি ছাড়া করা যায় না। যেহেতু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন সেটা আমরা বিস্তারিত জেনে তারপর ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

অপর দিকে প্রিয়া সাহা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের বিষয়ে ট্রাম্পকে যে তথ্যগুলো প্রিয়া সাহা দিয়েছেন তা সর্বৈব মিথ্যা, বিএনপি-জামায়াতের সময় ছাড়া বাংলাদেশে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি।

তিনি আরও বলেন, এটা তার (প্রিয়া সাহা) ব্যক্তিগত ঈর্ষা চরিতার্থের জন্য করেছে। এত ছোট্ট ঘটনায় রাষ্ট্রদ্রোহ হয়ে গেছে, তা মনে করি না।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন ট্রাম্প। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়াও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

তিনি ট্রাম্পকে বলেন, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। দেশটিতে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান নিখোঁজ রয়েছেন। অনুগ্রহ করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।

প্রিয়া বলেন, এখনো সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছেন। আমরা বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছেন, ভূমি দখল করে নিয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনও বিচার পাইনি। তার এমন বক্তব্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াসহ সারাদেশে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা।

প্রসঙ্গত, প্রিয়া সাহা বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্ট্রান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ঢাকা থেকে সদ্য প্রকাশিত ‘দলিত কণ্ঠ’ নামক একটি পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক। এছাড়া বাংলাদেশের দলিত সম্প্রদায় নিয়ে একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার পরিচালক হিসেবে তিনি কর্মরত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here