প্রিয়া সাহার বক্তব্য জঘন্য মিথ্যাচার, দ্রুত বিচারের দাবি ১৪ দলের

নিজস্ব প্রতিনিধি:যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে অভিযোগ করা প্রিয়া সাহার বক্তব্য জঘন্য মিথ্যাচার বলে মনে করে ১৪ দল। এর দায়ে প্রিয়া সাহাকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে তারা।

শনিবার (২০ জুলাই) ১৪ দলের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ দাকি জানানো হয়।

বিবৃতিতে ১৪ দলীয় জোটের মুখপাত্র ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার পাশাপাশি কার প্ররোচনায়, কোন মহলের মদদে তিনি এ ধরনের মিথ্যাচার করেছেন তা বের করা উচিত। এ ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমি মনে করি, বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্ক বিনষ্ট ও নির্বাচিত সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে অশুভ মহল তাকে দিয়ে কাজটি করিয়েছে। তার বিরুদ্ধে দ্রুত রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করে আইনের আওতায় আনতে হবে।

নাসিম বলেন, বিশ্ববাসী জানে, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। সব ধর্মের মানুষ এখানে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস ও ধর্মীয় উৎসব পালন করতে পারছে, যা বিশ্বে একটি বিরল দৃষ্টান্ত।

উল্লেখ্য, বুধবার (১৭ জুলাই) ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার বিভিন্ন দেশের ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। তখন বাংলাদেশের প্রিয়া সাহাও মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

সেখানে প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বলেন, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ সংখ্যালঘু গুম হয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে রক্ষা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here