নিহত রিফাতের স্ত্রী মিন্নির সাক্ষ্যগ্রহণ

বরগুনার প্রতিনিধি:বরগুনার কলেজ রোডে প্রকাশ্য দিবালকে রিফাত শরিফকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সকালে পুলিশের একটি দল মিন্নিকে তার বাড়ি থেকে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়ে যায়। সেখানেই তার সাক্ষ নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মারুফ হাসান জানান, হত্যা মামলাটির অন্যতম সাক্ষী হিসেবে মিন্নিকে ডেকে নিয়ে সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

সদর থানার ইন্সপেক্টর হুমায়ুন কবির ও এসপি মারুফ হাসানসহ মামলার তদন্তের সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬১ ধারায় সাক্ষী হিসেবে মিন্নির বক্তব্য নেন। পুলিশ সেসময় সন্দেহজনক আসামিদের শনাক্ত করতে মিন্নির সহায়তা নেন।

এদিকে রিফাত হত্যার ঘটনায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জড়িত দাবি করে গত ১৪ জুলাই বরগুনায় সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে একটি মানববন্ধন করা হয়েছে।

মানববন্ধনের পরপরই বাবার বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে মিন্নি দাবি করেন, মামলায় অভিযুক্ত আসামিদের আড়াল করতেই তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। এসময় তিনি অপপ্রচারকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় রিফাতের বাবা দুলাল শরিফ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

রিফাত হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত ২ জুলাই ভোররাতে মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত তিনজনসহ সাত আসামি হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। এ ঘটনায় বর্তমানে ছয়জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। পূর্বপশ্চিমবিডি/এস.খান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here