বন্যার্তদের জন্য পুতুলের বিশেষ নৌকার ডিজাইন

নিজস্ব প্রতিনিধি:বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে নৌকার বিশেষ ডিজাইন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল। তার তৈরি নকশা অনুযায়ী নৌকা তৈরি করলে তা দিয়ে বন্যার্তদের ঘর-বাড়িও নিরাপদ স্থানে নেওয়া সম্ভব হবে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সচিবালয়ে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের তৃতীয় দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ডিসিরা দুর্যোগে কাজ করার জন্য স্পিডবোটের সংখ্যা বাড়ানো এবং সারা বছর জ্বালানি সরবরাহের প্রস্তাব করেছেন। বন্যার্তদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরানোর জন্য নৌকার প্রস্তাব দিয়েছেন, আমরা নৌকার জন্য আগে এক লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিলাম। ওনারা (ডিসিরা) তিন লাখ টাকা বরাদ্দ চেয়েছেন।

এনামুর রহমান বলেন, এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য কন্যা সায়মা হোসেন আমাদের একটি প্রস্তাব দিয়েছেন, একটি ডিজাইন দিয়েছেন, এস্টিমেট দিয়েছেন ১০ লাখ টাকার একটি নৌকা। যে নৌকায় বন্যা কবলিত জনগণ তাদের মালামাল, এমনকি ঘর পর্যন্ত অন্য জায়গায় সরিয়ে নিতে পারবেন। আমরা সেটারও প্রকল্প গ্রহণ করছি।

এ বিষয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল বলেন, বন্যাপ্রবণ ৩৫ জেলায় এ নৌকা সরবরাহ করা হবে। প্রাথমিকভাবে প্রতি জেলায় একটি করে দেওয়া হবে। এ নৌকা দিয়ে বন্যার সময় চর এলাকা থেকে মানুষ ও তাদের ঘরসহ আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা হবে। নৌকার পূর্ণাঙ্গ ডিজাইন হচ্ছে, ইঞ্জিনচালিত এ নৌকায় অনেক মানুষ ধরবে। নৌকার আকার অনেক বড় হবে।

চলমান বন্যা নিয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, গতকাল পর্যন্ত ২০টি জেলা আক্রান্ত হয়েছে। প্রথমে ১০টি ছিল, তার দু’দিন পরে ১৫ এবং গতকাল পর্যন্ত ২০টি জেলা কবলিত হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের অধীনে যে এসওডি (স্ট্যান্ডিং অর্ডার অন ডিজাস্টার) অনুযায়ী প্রত্যেক জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড লেবেলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি আছে। প্রত্যেক কমিটিকে নির্দেশ দিয়েছি দুর্যোগ মোকাবিলায় এসওডি অনুযায়ী কাজ করার জন্য। তাদেরকে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জেলা প্রশাসকেরা যেন তদারকি করেন, ত্রাণ সরবরাহ সঠিকভাবে যেন হয়, কোনো রকমন দুর্নীতি যেন না হয়, বন্যা কবলিত মানুষ যেন নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে পারে – ডিসিদের এমন ২৩টি আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here