তানোরে গ্রামীণ ফোনের নেটওয়ার্ক নেই, সমস্যায় ব্যবহারকারীরা

তানোর প্রতিনিধিঃ: তানোরের গ্রামের বাড়িতে গ্রামীন ফোনের নেটওয়ার্ক সমস্যায় মোবাইল ব্যবহার কারীরা বিড়াম্বনার স্বীকার হচ্ছেন। ফলে মোবাইল ব্যবহার কারীরা গ্রামীন ফোন ছেড়ে বাংলালিং রবিসহ অন্য অপারেটরদের সিম কিনতে বাধ্য হচ্ছেন।

তানোর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের গ্রামীন ফোন ব্যবহারকারী গ্রাহকদের অভিযোগ ফোর জি’র জুগে প্রবেশ করলেও গ্রামের মাটির বাড়িতে গ্রামীন ফোনের সিমে নেটওয়ার্ক থাকেনা। ঘরে মোবাইল ফোন থাকলে নেটওয়ার্ক থাকেনা, ফলে জরুরী প্রয়োজনে কেউ ফোন দিলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। ফলে জরুরী খবরা খবর পাওয়া যায়না। অন্য দিকে বাড়ির বাহিরে বের হয়ে মোবাইলে কোন রকম কথা বলা গেলেও কথা বোঝা যায়না। অপর দিকে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ফেইসবুকসহ ইন্টারনেটে ই-মেইলে জরুরী কোন করতে পারেন না। ফলে গ্রামীন ফোন ব্যবহারকারীরা চরম বিড়াম্বনায় পড়েছেন।

তানোর পৌর এলাকার ধানতৈড় গ্রামের সাংবাদিক আশরাফুল আলম বলেন, ২০১৮সাল থেকে গ্রামীন ফোনের মোবাইল ব্যবহার শুরু করেছি, ওই সময় বাড়িতে এন্টেনিয়ারে ফোন ব্যবহার করা হতো, পরে টাওয়ার হলেও বাড়িতে ঢুকলে আর নেটওয়ার্ক থাকে না। কিন্তু অন্য অপারেটরদের নেটওয়ার্ক পাওয়া যায়ভ। তিনি বলেন শুরু থেকে গ্রামীন ফোন ব্যবহার করার কারনে নম্বরটি সবার কাছেই পরিচিত হয়ে আছে ফলে গ্রামীর ফোনের নেটওয়ার্কের সিম ব্যবহার বন্ধ করতে পারছিনা। তিনি আরো বলেন কাষ্টার সার্ভিসসহ ১টু১ সম্বরসহ একাধীকবার অভিযোগ কলেও কোন ফল পাওয়া যায়নি। ফলে বাধ্য হয়ে রবি’র একটি সিম ব্যবহার করছি।

তালন্দ ইউপি’র মোহর গ্রামের জাকির হোসেন টুটুল বলেন, আমার বাড়িতে গ্রামীর ফোনের ইন্টারনেটের নেটওয়ার্ক পাওয়া তো দুরের কথা মোবাইলে কথা বলা যায়না। বাড়ির বাহিরে কথা বলা গেলেও ঘরের ভিতরে কোন নেটওয়ার্ক থাকেনা। তিনি বলেন, গ্রামের মানুষের জীবন মান উন্নয়নের কথা চিন্তা করে গ্রামীন ব্যাংক গ্রামীর ফোন চালু করলেও গ্রামের বাড়িতে গ্রামীর ফোনের কোন নেটওয়ার্ক থাকেনা। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, তখন গ্রামীন ফোন গ্রামের বাড়িতে বসবাসকারী মোবাইল ব্যবহারকারী মানুষদেরকে পিছিয়ে রাখছে। গ্রামের মানুষকে পিছিয়ে রেখে দেশ কি ভাবে এগিয়ে যাবে ?।
তিনি গ্রামের বাড়িতে গ্রামীর ফোন কোম্পানীর নেটওয়ার্ক সমস্যা সমাধানে সরকারের উর্ধবতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি ও হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here