শ্যামনগরে হুমকির মুখে নদী, দেখার কেউ নেই

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃশ্যামনগরের দাতিনাখালীর ৫নং পোল্ডারের চুনার নদীর বেড়িবাঁধে ভাঙন মারাত্মক আকার ধারন করেছে। এ বেড়িবাঁধের তৃতীয়াংশ নদীতে চলে গেছে। বাকি অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে।

এছাড়া জুয়েলের কাঁকড়া হ্যাচারীর সামনে দেয়া রিং বাঁধ ছিদ্র হয়ে ভিতরে লোনা পানি ঢুকছে। অথচ এলাকাবাসী স্থানীয় চেয়ারম্যান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও, উপজেলার ইউএনও, বিজিবি অধিনায়ক এমনকি এমপি মহোদয়কে অবহিত করেছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পানি উন্নয়ণ বোর্ডের এসও মাসুদ রানা, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবি অধিনায়কের পক্ষ থেকে এলাকা পরিদর্শন করেছেন। এলাকার মানুষ ভাঙন আতঙ্কে বসবাস করছে।

বর্তমানে এলাকাবাসী স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে বালির বস্তা ফেলে ভাঙন রক্ষার চেষ্টা করছে। অথচ স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার সহযোগিতা করেননি। তারা বলেন বরাদ্ধ না থাকলে ভাঙন ঠেকাতে কাজ করা সম্ভব নয়।

শ্যামনগর উপজেলাসহ কালিগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন নদীর পানিতে প্লাবিত হয়ে জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হবে।

তথ্যনুসন্ধানে জানা গেছে দাতিনাখালী নাসির মোড়লের বাড়ি থেকে নদী ভাঙন দীর্ঘ বছরের সমস্যা। এরইমধ্যে ভাঙন রোধে জাইকা প্রকল্পের অর্থায়নে কারিতাস কাজ করেছে।

সর্বশেষ পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও মাসুদ রানা জানান, ঐ এলাকায় ব্লক বসানোর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তবে সময় লাগবে এখনও পাঁচমাস। এ মুহূর্তে বাঁধটি সংস্কার খুবই জরুরি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here