নন-এমপিও শিক্ষকদের পাঁচ কর্মসূচি

বেতনের সরকারি অংশের (এমপিও) দাবিতে জাতীয় সংসদের স্পীকার, রাষ্ট্রপতি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান, অবস্থান ও আমরণ অনশনসহ ৫টি কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃবৃহস্পতিবার (২১ জুন) সকাল ১০টায় প্রেসক্লাবের উল্টো পাশে অবস্থান কর্মসূচি পালনের সময় এ ঘোষণা দেন তারা।

নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার জানিয়েছেন, বেতন না পাওয়ায় তারা রাজপথে ঈদ পালন করেছেন। তাদের পারিবারের সদস্যরাও না খেয়ে আছেন। যতক্ষণ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এমপিওভুক্ত না হচ্ছে ততক্ষণ আমরা রাজপথ ছাড়বো না।

ফেডারেশনের সভাপতি আরো বলেন, ‘ঈদের জন্য আমাদের আন্দোলন (অবস্থান কর্মসূচি) আধা বেলা হলেও এখন থেকে দিনরাত কর্মসূচি পালণ করা হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এমপিভুক্ত করা না হবে ততক্ষণ আমরা রাজপথেই অবস্থান করব।’

এমপিওভুক্তির দাবিতে নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার কর্মসূচি শুরু করেন। টানা ওই অবস্থান ও অনশনের একপর্যায়ে ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে তার তৎকালীন একান্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসান সেখানে গিয়ে আশ্বাস দেন। এরপর শিক্ষক-কর্মচারীরা আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন। এরপর সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে বলা হয়েছে, নতুন অর্থবছরে নতুন বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হবে।

কিন্তু অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের যে বাজেট প্রস্তাব করেন, সেখানে তিনি নতুন এমপিওভুক্তির বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছু বলেননি। যদিও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে তা থেকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত করা হবে।

আগামী ২১ জুন জাতীয় সংসদের স্পিকার ও ডিপুটি স্পিকার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান, ২২ জুন রাষ্ট্রপতি বরাবর স্মারকলিপি, ২৩ জুন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতীকী অনশন, ২৪ জুন অবস্থান ও ২৫ জুন আমরণ অনশনের ঘোষণা দেন নন-এমপিও শিক্ষকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here