বাবুগঞ্জ-নতুনবাজার রুটে শীঘ্রই চালু হচ্ছে ম্যাজিক সার্ভিস

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বাবুগঞ্জবাসীদের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগের অবসান হয়েও যেন শেষ হচ্ছেনা। বিশেষ করে বাবুগঞ্জ-নতুনবাজার রুটের যাতায়াতকারী যাত্রী সাধারণ এ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন বেশি। কেননা স্বাধীনতার দীর্ঘ বছর পর নতুনবাজার-বাবুগঞ্জ রুটে বাস চলাচল শুরু হয়। এতে করে এ রুটের যাত্রীরা কিছুটা আশার আলো দেখতে শুরু করে। কিন্তু বাস মালিকদের অব্যবস্থাপনা এবং লোকসানের অজুহাতে এ রুটে দীর্ঘ ৬ মাস পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে বাস চলাচল। তবে এ রুটের যাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘবে শীঘ্রই চালু হতে যাচ্ছে ম্যাজিক সার্ভিস। অসমর্থিত সূত্রটি বলছে, বাস বন্ধ হওয়ায় এ সুযোগটি কাজে লাগাতে শীঘ্রই এ রুটে অন্তত ১০টি ম্যাজিক গাড়ি চলাচল শুরু করবে।
স্থানীয়দের দেয়া তথ্য মতে, বাবুগঞ্জ থেকে রহমতপুর ও নথুল্লাবাদ হয়ে বরিশাল নগরীতে প্রবেশ করতে অনেকটা সময় ব্যয় হয় যাত্রী সাধারণের। আর খরচও বেশি পড়ে। স্বাধীনতার পূর্বে তৈরী হওয়া নতুনবাজার টু বাবুগঞ্জ সড়কটি প্রশস্থকরণ করার পর এ রুটে বাস মালিক সমিতির পক্ষ থেকে বছর পাঁেচক পূর্বে ৬টি বাস চলাচলের জন্য দেয়া হয়। আর তাদের স্বাগত জানিয়েছিল এ রুটে চলাচলকারী যাত্রী সাধারণ। নিয়মিত যাত্রী বাড়তে থাকলে এক পর্যায় আরো ৪টি বাস এ রুটে যোগ হয়। এ অঞ্চলের শহরমুখী সাধারণ মানুষ এ রুটে বাস চালু হওয়ায় সময় আর অর্থ দুটোই সাশ্রয়ে বেশ খুশিই হয়েছিল। তারা ভেবেছিলেন ভবিষ্যতে এ রুটে আরো অত্যাধুনিক বাস সার্ভিস চালু হবে। কিন্তু বিধি বাম। হঠাৎ করেই বিভিন্ন অজুহাত তুলে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয় মালিক পক্ষ। গত ৬ মাস যাবৎ মাঝে মধ্যে দুই একটি বাস চলাচল করলেও তা এখন পুরোপুরি বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়ে গেছে। কেননা অনিয়মিত সার্ভিস দেয়ায় যাত্রী সাধারণ অন্য পরিবহনে যাতায়াত করে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক বাস চালক জানান, মাঝে মধ্যে যাত্রী কম হওয়ায় তেল খরচও উঠে না। আর সারা বছর লাভবান হলেও মালিক পক্ষ লোকসান মেনে রাজী নয়। এজন্যই বাস নিয়মিত চলাচল করেনা। সূত্রে জানা গেছে, এ রুটে যাত্রী বেড়ে যাওয়ায় এবং বাস বন্ধ থাকায় বর্তমানে এখানে প্রায় ৬০টির মতো আলফা মাহিন্দ্রা চলাচল করছে। অথচ নিয়মিত বাস চলাচলকালীন সময়ে এ রুটে মাত্র ১০টি আলফা মাহিন্দ্রা চলাচল করতো। নাম প্রকাশ না করার শর্তে আলফা মাহিন্দ্রা চালকরা জানান, বাস বন্ধ থাকায় তাদের আয় কিছুটা হলেও বেড়েছে। তারা বলেন, বর্তমানে আলফা মাহিন্দ্রার সংখ্যা বেড়ে গেলেও তাদের আয়ে ঘাটতি নেই। এদিকে একটি অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে, এ রুটের যাত্রীদের কথা বিবেচনা করে শীঘ্রই ১০টি ম্যাজিক সার্ভিস চালু হতে যাচ্ছে। প্রথমে পরীক্ষামূলক ১০টি ম্যাজিক গাড়ি নামানো হলেও যাত্রীর পরিমান দেখে ম্যাজিক বাড়ানো হবে বলেও জানান সূত্রটি। ওই সূত্রের দাবী এ সড়ক বাস চলাচলের জন্য নয়। এটা আভ্যন্তরীন রুট। তাই ম্যাজিক সার্ভিস চালু হলেই যাত্রীরা স্বাগত জানাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here