গাজীপুর সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকছে না : সিইসি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃপ্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচন যদি সুষ্ঠু না হয় তাহলে যে ব্যক্তি দায়ী হবে তার বিরুদ্ধে আইনগত কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য যে পর্যায়ে যাওয়ার দরকার হয় যাওয়া হবে। এ নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে না।

বুধবার দুপুরে গাজীপুর সিটি নির্বাচন উপলক্ষে সমন্বয় কমিটির বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

সিইসি বলেন, গাজীপুর সিটিতে ২৬ জুন নির্বাচন কীভাবে হবে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব কী হবে এবং প্রশাসনের কী ভূমিকা থাকবে তার পরিকল্পনা কী থাকবে তা নিয়ে আলাপ আলোচনা ও মতবিনিময় হয়েছে। আলোচনা ও মতবিনিময় সফল হয়েছে। আমারা আশা করি ২৬ জুন যে নির্বাচন হবে সেটা সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে। ভোটাররা তাদের পছন্দ মতো প্রার্থীদের ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, গাজীপুরে নির্বাচন নিয়ে কোনো ঝুঁকি নেই। নির্বাচন সুষ্ঠু হবে এ প্রত্যাশা করেছে উপস্থিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা। গাজীপুরের প্রশাসন সর্বাত্মক চেষ্টা করবে নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য। আর এ রকম অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, খুলনায় প্রতিটি কেন্দ্রে এত প্রস্তুতি থাকার পরও কেন ভোট স্টাপিং হলো সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এবার গাজীপুর জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য যারা সভায় ছিলেন তারা কথা দিয়েছেন যে গাজীপুরে সেটা হবে না।

নির্বাচনে আচরণবিধি ভঙ্গের জন্য বিএনপি প্রার্থী বারবার অভিযোগ দিলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, কোথায় আচরণ বিধি ভঙ্গ হচ্ছে সেটাতো বলতে হবে। আচরণবিধি ভঙ্গের বিষয়টি সুস্পষ্ট বললে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসক বা পুলিশ সুপারকে ব্যবস্থা নিতে বলবো।

তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন হবে না। সেটা সবাইকে বারবার বলেছি। বর্তমানে গাজীপুরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির ব্যাপারে সন্তোষজনক।

ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কে এম আলী আজমের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, বেগম কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী ও নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীরের সঞ্চালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি আব্দুল্লাহ আল মামুন, গাজীপুরের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ হারুন অর রশীদসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তা ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here