রিস্ক নিতে চান না গাজীপুরে মেয়র প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ এদেশের মানুষ নির্বাচন প্রিয়। এদেশের মানুষ খেলা প্রিয়। এদুটো বিষয় নিয়ে যতোটা উত্তেজনা এখানে কাজ করে অন্যকিছু নিয়ে তেমন উত্তেজনা কাজ করে কি না তানিয়ে বিতর্ক হতে পারে।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যেমন জনসমর্থন বিভক্ত হয়ে যায় তেমনি বিভক্তি আসে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করেও। মনে মনে কোন একটি দেশকে সাপোর্ট করেনা এমন লোক কী আছে দেশে। আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, জার্মান… আরো কতো কী!

গাজীপুর সিটি এলাকায় এখন দুটি উত্তেজনা। একদিকে আসন্ন সিটি নির্বাচনী উত্তেজনা অন্যদিকে বিশ্বকাপের হাওয়া।

জাহাঙ্গীর আলম নাকি হাসান উদ্দিন সরকার এমন তর্ক যেমন অনেকের আলোচনার বিষয় তেমনি আর্জেন্টিনা নাকি ব্রাজিল, মেসি নাকি নেইমার- তাও আছে অনেকের আলোচনা জুড়ে।

অলিগলি রাস্তা ঘাটে প্রার্থীদের পোস্টার শোভা পাচ্ছে তেমনি বাড়িগুলোর ছাদে পতপত করে উড়ছে ভিনদেশী বিভিন্ন পতাকা। প্রথমটির সাথে এলাকার উন্নয়ন রাজনীতি এসব জড়িত হলেও দ্বিতীয়টি শুধু মাত্র আবেগ নির্ভর। এতে লাভের কোন দিক না থাকলও আত্মতৃপ্তির জন্য মেতে উঠে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে।

কিন্তু আমরা এমন দু`জনকে পেলাম যারা বিশ্বকাপ ফুটবলে কোন দলকেই সমর্থন করেন না। তারা দু`জনেই ফুটবল খেলে মাঠ কাঁপিয়েছেন। ফুটবল নিয়ে অনেক দাপুটে স্মৃতি আছে তাদের। তবে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে দু`জনেই নীরব। তারা দু`জন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এবার মেয়র প্রার্থী। একজন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম, অন্যজন বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার।

হাসান উদ্দিন সরকার একসময় বিভাগীয় পর্যায়ের খেলোয়াড় ছিলেন। ঢাকার বিভিন্ন স্টেডিয়ামে খেলার অনেক স্মৃতি আছে তার। অন্যদিকে জাহাঙ্গীর আলম বড় পরিসরে না খেললেও নিজের বদরে আলম কলেজ মাঠে অসংখ্যবার খেলতে হয়েছে তাকে। বুঝাই যায় ফুটবলের নানা নিয়ম কানুন যেমন রপ্ত আছে তাদের তেমনি খেলাধুলার বিষয়ে যথেষ্ট সচেতন তারা। তাহলে?

জাহাঙ্গগীর আলমকে গণমাধ্যম কর্মীরা ফুটবলে তার সমর্থনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, খেলা দেখি। ভাল লাগে। তবে কোন সমর্থন নেই।

জাহাঙ্গীর আলমের প্রতিদ্বন্দ্বী হাসান উদ্দিন সরকারের কন্ঠেও একই সুর। একটু অন্যভাবে তিনি বললেন, যে জিতবে আমি তার পক্ষে।

আসলেই কী তাই? জাহাঙ্গীর আলমের এক সমর্থক এ প্রতিবেদকের কাছে দাবি করলেন মানুষ খেলা নিয়ে এতোটাই উত্তেজিত, প্রার্থীরা সেখানে অসহায়। জাহাঙ্গীর ভাই যে দলের নাম বলবেন অন্য দলের কট্টর সমর্থকরা তাকে ভোট না দেওয়ার সম্ভাবনা আছে।

উপরের বক্তব্যের সঙ্গে সুর মেলালেন জাহাঙ্গীর আলম। বললেন, খেলা নিয়ে তরুণরা এতোটাই মাতোয়ারা সেখানে রিস্ক নেওয়া ঠিক হবেনা।

আর হাসান উদ্দিন সরকার মিটমিটি হেসে বলেন, যে দল ভাল খেলতে দেখবেন ধরে নিবেন আমি সে পক্ষেই আছি। আর কিছু বলবো না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here