এক বছরে দেশে ফিরেছে সাড়ে ৩ হাজার প্রবাসীর লাশ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃগত বছরে (২০১৭ সাল) বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ৩ হাজার ২৬৩ জন প্রবাসী বাংলাদেশির মৃতদেহ দেশে ফেরত আনা হয়েছে।

দেশের ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে এসব লাশ আনতে পরিবহন ব্যয় বাবদ ও এসব মৃতদেহের দাফন খরচ বাবদ সরকারিভাবে তাৎক্ষনিকভাবে প্রত্যেক মৃত কর্মীর পরিবারকে ৩৫ হাজার টাকা করে মোট ১১ কোটি ৪১ লাখ ৩৫ হাজার টাকা সরকারের খরচ হয়েছে।

পরবর্র্তীতে এসব প্রবাসীর পরিবারকে আর্থিক অনুদান হিসেবে দেয়া হয়েছে আরো শত কোটি টাকা।

জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে মমতাজ বেগমের এক প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি।

তিনি জানান, ওয়েজ কল্যাণ বোর্ড হতে প্রবাসী মৃত কর্মীর পরিবার প্রতি ৩ লাখ টাকা করে ২০১৭ সালে ৩ হাজার ৫০৫ জন কর্মীর পরিবারকে ১০১ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া প্রবাসে মৃত্যুবরনকারী কর্মীর ইন্সুরেন্স বাবদ ১ হাজার ১৪২ জন কর্মীর অনুকুলে ৬৯ কোটি ৩৫ লাখ টাকা ওয়ারিশদের মধ্যে বিতরন করা হয়েছে। এছাড়া ২০১৭ সালে ২ হাজার ৩৪৩ জন প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানকে ১ কোটি ৬৭ লাখ টাকা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

নির্যাতনের কারণে দেশে ফিরে এসেছে ৩৬৯ নারী কর্মী সেলিম উদ্দিনের এক প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, চলতি বছর বিদেশগমনকারী ৫৫ হাজার ১৪৯জন নারী কর্মী বিদেশ পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে বিভিন্ন সমস্যার কারণে ৩৬৯ জন নারী কর্মী দেশে ফিরে এসেছেন। কর্মক্ষেত্রে নারী কর্মীদের হয়রানী বন্ধ ও নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিত করার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে আইনজীবী নিয়োগ করে আইনগত সহায়তা প্রদান, প্রতিকার পাওয়ার জন্য প্রবাসবন্ধু কলসেন্টার চালু করাসহ ওমান ও সৌদি আরবের জেদ্দা ও রিয়াদে সেইফ হোম প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

সুকুমার রঞ্জন ঘোষের এক প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম বিএসসি জানান, বর্তমানে বিশ্বের ১৬৫টি দেশে ১ কোটির বেশী কর্মী কর্মরত রয়েছে। শুধু মাত্র মধ্য প্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশী ২৩ লাখ ৩৫ হাজার ৮৭৩ জন কর্মী গমন করেছে।

বেগম সানজিদা খানমের প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, বর্তমান সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে (১ জানুয়ারি ২০১৪ থেকে ৩১ মে ২০১৮ পর্যন্ত) ৩০ লাখ ৯৪ হাজার ৮৪৮জন কর্মী বিদেশে কর্মসংস্থান লাভ করেছে। এরমধ্যে ২০১৭ সালেই বিদেশ গেছেন ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন। মন্ত্রীর দেয়া তথ্যানুযায়ী, ২০১৪ সালে বিদেশ গেছেন ৪ লাখ ২৫ হাজার ৬৮৪ জন। ২০১৫ সালে বিদেশ গেছেন ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৮৮১জন। ২০১৬ সালে বিদেশ গেছেন ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৩১ জন। ২০১৮ সালের মে মাস পর্যন্ত বিদেশ গেছেন ৩ লাখ ৪৭ হাজার ২৭ জন। মন্ত্রী বলেন, মধ্য প্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে আমাদের সবচেয়ে বড় শ্রম বাজার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here