ভিলেন মেসি আর নায়ক হালডরসন!

স্পোর্টস ডেস্ক : আর্জেন্টিনা তো বটেই, পুরো ফুটবল দুনিয়ার নায়কদের একজন লিওনেল মেসি। যে ম্যাচে তিনি খেলবেন সেই ম্যাচের ‘হিরো’র তকমা অন্য কারও পক্ষে পাওয়া বেশ কঠিন। হিরো না হয় অন্য কেউ হলো কিন্তু সেই মেসিই কীভাবে ভিলেন হন? আইসল্যান্ডের সাথে আর্জেন্টিনার আজকের ম্যাচে সেই বিষয়টিই ঘটেছে। ম্যাচের হিরো বনে যান আইসল্যান্ডের গোলরক্ষক হালডরসন।

চলতি রাশিয়া বিশ্বকাপে আজ শনিবার ডি-গ্রুপের প্রথম ম্যাচে মাঠে মুখোমুখি হয়েছিল আর্জেন্টিনা ও আইসল্যান্ড। মস্কোর স্পার্টাক স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের আসরে অভিষেক দল আইসল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলে ড্র করে আর্জেন্টিনা। কিন্তু এই ম্যাচে জিততে পারত মেসি-হিগুয়েন-ডি মারিয়ারা। জয়ে ব্যর্থ আর্জেন্টিনার মেসি তাই বনে যান ভিলেন। আর মেসিদের থামিয়ে দিয়ে হালডরসন হয়ে যান ম্যাচের নায়ক।

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ খেলতে আসা আইসল্যান্ডের আজকের ম্যাচে হারানোর মত ছিল না কিছুই। অন্যদিকে ভক্তদের জন্য গত বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট আর্জেন্টিনার রয়েছে ব্যাপক দায়বদ্ধতা। শিরোপা জেতার দায়বদ্ধতা। আর তাই আইসল্যান্ডের কাছে আর্জেন্টিনার ড্র একধরনের পরাজয়। আর দুই বারের বিশ্বকাপ জয়ীদের ড্র এর মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা আইসল্যান্ডের জন্য জয়ই বটে!

ম্যাচের ৬৩ মিনিটে আর্জেন্টিনার ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজাকে নিজেদের ডি-বক্সের ভেতর ফাউল করেন আইসল্যান্ডের ম্যাগনুসন। ফলাফলে পেনালটি পায় আর্জেন্টিনা। পেনালটি শট নিতে আসেন অধিনায়ক লিওনেল মেসি।

লিওনেল মেসির বাঁ পায়ের নেওয়া শট দুই হাতে রুখে দেন আইসল্যান্ডের গোলরক্ষক হালডরসন। এক নিমিষেই আর্জেন্টিনার আশার আলো যেন নিভে যায় তাতে।

শুধু পেনালটি শটই নয়, ম্যাচের পুরোটা সময় প্রতিপক্ষের বেশ কয়েকটি জোরালো আক্রমণ রুখে দেন হালডারসন। আইসল্যান্ড ‘দূর্গে’র নিরাপত্তার দায়িত্ব যেন একাই নিয়ে নেন তিনি। আর শেষ পর্যন্ত সফলও হন।

আর তাতেই আজকের ম্যাচের হিরো বনে যান হালডারসন। আর ভিলেন হয়ে থেকে গেলেন মেসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here