মিশরকে ১ গোলে হারালো উরুগুয়ে

স্পোর্টস ডেস্ক :হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে মিশরকে ১-০ গোলে হারালো উরুগুয়ে। রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচে ম্যাচ শেষ হওয়ার ঠিক পূর্ব মুহুর্তে গোল করে জয় নিশ্চিত করে উরুগুয়ে। দলের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন জে এম জিমিনেজ।

বিশ্বকাপের মতো আসরে জিমিনেজের এটিই প্রথম গোল। ২ নম্বর জার্সি গায়ে রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হয়েও গোলটি করেন জিমিনেজ। তবে তাঁর এই গোলে তারকা স্ট্রাইকার সুয়ারেজের ছিল বড় অবদান। ডি-বক্সের বাইরে থেকে সুয়ারেজের নেওয়া ফ্রী-কিকে মাথা লাগিয়েই গোলটি করেন জিমিনেজ।

এই গোলের আগ পর্যন্ত দুই দলই একে অপরের শিবিরে একের পর এক আঘাত হানে। কিন্তু কিছুটা ভাগ্য আর কিছুটা প্রতিপক্ষ দলের গোলরক্ষকের দক্ষতায় কোন দলই সুযোগগুলোকে গোলে পরিণত করতে পারেনি।

গ্রুপ-এ এর দ্বিতীয় ম্যাচে ইকাটেরিনবার্গ স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই দুই দল প্রতিপক্ষ শিবিরে মুহুর্মুহু আঘাত হানতে থাকে। গত ২০১৪ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালিস্ট উরুগুয়ের তুলনায় ২৮ বছর পর বিশ্বকাপ খেলতে আসা মিশরকে বেশ শক্ত প্রতিপক্ষই মনে হচ্ছিল। তবে প্লেমেকার এবং আক্রমণ ভাগের মূল খেলোয়াড় মোহাম্মদ সালেহের ইনজুরির কারণে দলের বাইরে থাকার খেসারত বেশ ভালোভাবেই দিতে হয় মিশরকে। উরুগুয়ের ডি-বক্সের একদম কাছে গিয়েও সুন্দর এক ‘ফিনিশারের’ অভাবে গোলের দেখা পায়নি মিশর।

উরুগুয়ের জন্য বিষয়টি ছিল ভিন্ন। দলে ছিল সুয়ারেজ এবং কাভানির মতো তারকা খেলোয়াড়। তবে মিশরের গোলরক্ষক মোহাম্মদ এলশেনাওয়ি যেন রীতিমত এক দূর্গ হয়ে ছিলেন মিশরের জন্য। উরুগুয়ের বেশ কয়েকটি নিশ্চিত আক্রমণ রুখে দেন তিনি। ৭০ মিনিটে ডি-বক্সের একদম কাছে থেকে নেওয়া এডিসন কাভানির শট আঙ্গুলের ডগা দিয়ে মাঠের বাইরে পাঠান এলশেনাওয়ি। তবে এত কিছুর পরেও শেষ রক্ষা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here