ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা পেয়েছে ব্রাজিল : থিয়াগো সিলভা

স্পোর্টস ডেস্ক :গেল বিশ্বকাপে নিজেদের মাটিতে ৭-১ গোলে হারার পর ব্রাজিলের ডিফেন্ডারদের বহিস্কার করেছিল ব্রাজিল। কিন্তু এখন তারা পরিণত, কারণ ব্যর্থতা থেকে তারা শিক্ষা নিয়েছে। দলের খেলোয়াররা বিশ্বাস করে যে, কঠোর প্রশিক্ষণ তাদের শক্তিশালী করেছে।

থিয়াগো সিলভার দাবি, ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে জার্মানির কাছে হেরে যাওয়া ৭-১ গোলে পরাজিত ব্রাজিল শিখছে এবং এই গ্রীষ্মের টুর্নামেন্টে বিজয়কে অনুপ্রাণিত করার জন্য এর যথাযথ ব্যবহার করবে।

চার বছর আগে এই খেলার জন্য ডিফেন্ডারকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল এবং ব্শ্বিকাপে ব্রাজিল নিজদেশের সমর্থকদের দ্বারা ডাম্পড আউট হয়েছিল। চূড়ান্ত বিজয়ীদের কাছে ম্যাচটি কয়েকগোলে হারার জন্য তাদের আন্তর্জাতিক রেকর্ড ভেঙ্গেছে। জার্মানির সঙ্গে ব্রাজিল এবারও টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট মনে করে পিএসজির সেন্টার ব্যাক আশাবাদ প্রকাশ করেন, রাশিয়ায় শেষ ফলাফল ভিন্ন হবে। ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জিতে রেকর্ড গড়বে ব্রাজিল।

সিলভা বলেন, প্রত্যেকদিন আপনি নতুন কিছু শিখবেন। পেশাগতভাবে, ব্যক্তিগতভাবে এবং এমনকি মানসিকভাবেও, কারণ মানসিক দিকটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সিলভা আরো বলেন, অনেকবার আমরা এটি পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি। ব্যক্তিগতভাবে আমি এটা পরিবর্তন করতে চাই না, বরং স্বাভাবিকভাবেই সব ঘটবে। আমাদের এটা শিখতে হবে, সবাই আমাদের অশ্রুকে মেনে নেবেন না। আপনাকে সঠিক জিনিসটি করতে হবে এমনকি যদি কেউ আপনাকে আহতও করে।

ব্রাজিল ডিফেন্ডার বলেন, আমি যা বিশ্বাস করি সে সম্পর্কে খুব কমই মতামত পরিবর্তন করি। কিন্তু ২০১৪ সালে যে ঘটনা ঘটেছে এই শিক্ষাটি বিশাল। আশা করছি ২০১৮ সাল ব্রাজিল জাতীয় দলের থিয়াগো সিলভার জন্য হতে পারে ভিন্ন।

আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হচ্ছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়া, তবে একটি মহাসড়ক ধরে আমাদের সামনে এগোতে হবে। আর তা শেষ হতে পারে ট্রফি অর্জনের মধ্য দিয়ে।

২০০৮ সালে থিয়াগো সিলভার ডেব্যু হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি। ২০১০ সালে ব্রাজিল চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছানোর পর তাকে বেঞ্চ থেকে পর্যবেক্ষণ করতে বাধ্য করা হয়। তিনি ২০১৩ সালের কনফেডারেশনস কাপে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন, তবে নিজের মাটিতে এই কৃতিত্বটি পুনরাবৃত্তি করতে পারেননি, জার্মানির সঙ্গে তাদের গুরুত্বপূর্ণ সেমি ফাইনালে খেলতে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল হলুদ কার্ডের নিষেধাজ্ঞা।

থিয়াগো সিলভার এখন ৭০টি ক্যাপ আছে। কিন্তু সবসময় তিনি অনন্য হলুদ স্ট্রিপ পরতে গর্ববোধ করেন। এ প্রসঙ্গে ব্রাজিল ডিফেন্স স্টার বলেন, এটি ভিন্ন অনুভূতি, এটি একটি অনন্য মুহূর্ত। প্রতিটি খেলোয়াড়ই এই জার্সি পরতে পারে না।

এখানে অনেক প্রতিভাবান আছেন। যারা প্রতিযোগিতাটিকে আরো কঠিন করে তোলে, তাই আপনাকে টিকে থাকতে হলে অতিরিক্ত কিছু করে দেখাতে হবে। সেক্ষেত্রে ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপের কথা স্মরণে রাখা প্রথম কাজ হবে বলেও মনে করেন থিয়াগো সিলভা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here