হিজলায় আনন্দ স্কুলে ভুয়া শিক্ষার্থী দেখিয়ে টাকা আত্নসাৎ এর অভিযোগ

হিজলা প্রতিনিধি : বরিশালের হিজলা উপজেলার গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নের পূর্ব কোড়ালিয়া গ্রামের মতিউর রহমান নপ্তি বাড়ির আনন্দ স্কুলে ভুয়া শিক্ষার্থী দেখিয়ে টাকা আত্নসাৎ এর অভিযোগ। অভিযোগ সুত্রে জানাযায় ঐ স্কুলে ১৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এদের মধ্যে ১১ জন শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকা প্রকৃত শিক্ষার্থীদের না দিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা মোসাঃ মিনারা আক্তার (শিমলা) কতৃপক্ষকে ম্যানেজ করে আত্নসাৎ করেছে বলে দাবী করেছে উপবৃত্তি বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের অভিবাবক বৃন্দ। উপবৃত্তি বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা হল, তিশা, মিথিলা, রুবিনা, রবিউল, মাজিদ, মিম, নাজমা, মিম বেগম সহ ১১ জন। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবর এক লিখিত অভিযোগ পত্রে অভিবাবকরা দাবী করেন শুধু উপবৃত্তির টাকাই না এমনকি স্কুলের ঘর মালিকেও প্রায় ২ বছর যাবত বঞ্চিত করছে ঘর ভাড়ার টাকা থেকে। শিক্ষার্থী তিশা এর অভিবাবক ইয়াছমিন আক্তার বলেন আমার মেয়ে এই স্কুলে নিয়মিত কাসে উপস্থিত থাকলেও শিক্ষক মিনারা আক্তার বেশির ভাগ সময় থাকতেন অনুপস্থিত, তবে কি আমার মেয়ে শিক্ষিকার অনুপস্থিত থাকার কারনেই উপবৃত্তি বঞ্চিত ? শিক্ষার্থী মিথিলার অভিবাবক নিজাম নপ্তি বলেন মিনারা সকল শিক্ষার্থীর উপবৃত্তি টাকা আত্নসাৎ করেছে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল গাফফার বলেন আনন্দ স্কুল আমাদের তত্বাবধনে না, তার পরেও আমি লিখিত অভিযোগ পেয়ে নির্বাহী অফিসারকে জানিয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here