রাসিকে ভোটের আমেজ

রাজশাহী প্রতিনিধি:নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন-ক্ষণ নির্ধারণের পর রাতারাতি বদলে গেছে রাজশাহীর চিত্র। সর্বত্র ভোটের আমেজ বিরাজ করছে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের নির্বাচনকে ঘিরে আগে থেকেই মাঠে সরব আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ব্যানার ফেস্টুন আর লিফলেট বিলি শুরু হয় কয়েক মাস আগে থেকেই।

নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন-ক্ষণ নির্ধারণের পর থেকেই আওয়ামী লীগ প্রাথী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে আরো সোচ্চার হয়ে মাঠে নেমে পড়েছেন।

ভোটের দিনক্ষন নির্ধারণের পরদিন রাতেই পাল্টে গেছে রাজশাহী নগরীর দৃশ্যপট। এক রাতেই আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও সাবেক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামানের ঈদ শুভেচ্ছা আর ভোটের প্রার্থনা জানিয়ে পোস্টারে ছেয়ে গেছে রাজশাহী নগরী। নগরীতে এখন চোখ মেললেই লিটনের পোষ্টার-ব্যানার-ফেস্টুন আর লিফলেট। নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডের দেয়ালে, আইল্যান্ডে, মার্কেট-বিপনী বিতানের দেয়ালে এমনকি রিকশা, অটোরিকশা ও যানবাহনে স্টিকার সাঁটানো হয়েছে লিটনের।

নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে রাজশাহী নগরীকে উন্নয়নে আবারো বদলে দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে এসব ব্যানার-ফেষ্টুন- লিফলেট ও স্টিকারে।

নগরীতে বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের ব্যানার-ফেস্টুন এখনো দৃশ্যমান না হলেও সবখানে ঠাসা লিটনের ব্যানার-ফেস্টুনে। শুধু ব্যানার-ফেস্টুন নয়, লিফলেট হাতে মাঠেও নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

প্রতিদিনই বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হয়ে এসব লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। এতে সাড়াও মিলছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সমানে চলছে লিটনের পক্ষে ভোটের প্রচারণা।

এছাড়া রমজান মাসে ইফতারি অনুষ্ঠানেও তুলে ধরা হচ্ছে ভোটের আহ্বান। রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশাও লিটনের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। তিনি প্রকাশ্যেই বলেছেন রাজশাহীর উন্নয়নে লিটনের বিকল্প নেই। গতবার নগরবাসী ভুল করলেও এবার আর করবে না।

ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আসছে সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে মেয়র নির্বাচিত করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। এই নির্বাচন নিয়ে সবাইকে শক্তভাবে দাঁড়াতে হবে। লিটনের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।

বাদশা বলেন, গত নির্বাচনে লিটন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র হতে না পারায় রাজশাহীর উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। তাই উন্নয়নের স্বার্থেই লিটনকে এবার নির্বাচিত করতে হবে। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে। রাজশাহীর উন্নয়ন-অগ্রগতির কোনো বিকল্প নেই। তাই মেয়র হিসেবে লিটনেরও বিকল্প নেই। প্রচেষ্টার সবটুকু দিয়েই আমরা তাকে মেয়র নির্বাচিত করব।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, গত নির্বাচনে পরাজয়ের পর থেকেই রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ লিটনের পক্ষে মাঠে সোচ্চার। রয়েছে। গতবার রাজশাহীর মানুষ ভুল করলেও এবার বুঝতে পেরেছে রাজশাহীর উন্নয়নে লিটনের কোনো বিকল্প নেই। এবার তাই শুরু থেকেই লিটনের পক্ষে নগরবাসী আওয়াজ তুলেছেন।

এরআগে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি রাজশাহীতে এক ইফতার মাহফিলে যে কোনো মুল্যে রাজশাহীর উন্নয়নে লিটনকে নির্বাচিত করার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here