বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৩৫ অপরাহ্ন

আত্রাই উপজেলায় মাদক ও ছিনতাইকারীদের ঠাঁই হবে না

ক্রাইম ফোকাস ডেস্ক :
  • আপডেট সময় রবিবার, ১০ জুন, ২০১৮
  • ১১৯ বার পড়া হয়েছে

নওগাঁ প্রতিনিধিঃআমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা করতে সকল শ্রেণীর মানুষকে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্ছার হতে হবে। যারা মাদক বিক্রি করে তাদের সম্পর্কে তথ্যূ দিন। যারাই মাদক ব্যবসায়ীদের শেল্টার দিবে তাদের গ্রেফতার করা হবে। সে যতই প্রভাবশালী হোক না কেন । মাদকের বিষয়ে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। আত্রাই উপজেলায় মাদক ও ছিনতাইকারীদের ঠাঁই হবে না বলে কঠোর হুশিয়ারি দিয়ে জিহাদ ঘোষনা করলেন আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোবারক হোসেন আমাদের নওগাঁ জেলা প্রতিনিধির প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, যুব সমাজকে সজাগ ও সচেতন করার উদ্যেগ নিয়েছি। মাদকের ক্ষতিকারক দিকগুলো যুব সমাজকে বোঝাতে হবে। নেশার জগৎ থেকে তাদের ঘুঁরে দাঁরাতে উদ্বু করতে হবে। সন্ত্রাস,চাঁদাবাজি, ছিনতাই, চুরি,ডাকাতি,খুন সহ অধিকাংশ অপরাধই সংঘটিত হয় মাদকের কারণে। যেহেতু মাদক ও নেশাজাতীয় দ্রব্য সমাজের জন্য সর্বনাশ ও ধ্বংস ডেকে আনে, তাই মাদকমুক্ত এলাকা গড়তে সব সময় আপোষহীন থাকবো। আত্রাই থানার দায়িত্ব নিয়েই প্রথমে ছিনতাই ও মাদকের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করেছি। পুলিশের একার পক্ষে সব অপরাধ নির্মূলকরা সম্ভব নয়। এজন্য প্রয়োজন সাধারণ মানুষ, সকল রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের আন্তরিক সহযোগিতা। পুলিশ-জনতা ও সকল রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের মিলেই সমাজ থেকে অপরাধ নির্মূল করতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে জেলা পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসেন কঠোর থেকে আরো কঠোর। তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে আতঙ্ক। আত্রাই থানার ওসি মোবারক হোসেন বলেন,অপরাধীদের গ্রেফতারে সাঁড়াশিঁ অভিযান চালানো হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জেলা পুলিশ সুপারের কঠোরতার ফলও পেতে শুরু করেছে নওগাঁ জেলার মানুষ। মাদকবিরোধী অভিযান অব্যাহত আছে এবং থাকবে। পুলিশের কাছে যে সকল মাদক ব্যবসায়ী,সন্ত্রাস ও ছিনতাইকারীদের তালিকা রয়েছে, তাদেরকে অচিরেই গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে। যাতে করে সম্পূর্ণ রুপে মাদক ও ছিনতাই নির্মূল করা সম্ভব হয়। আত্রাই উপজেলাকে মাদকমুক্ত ও যুবসমাজকে মাদকের ভয়াল গ্রাস থেকে বাঁচাতে জিহাদ ঘোষনা করেছি। ওসি মোবারক হোসেন আরও বলেন, প্রতিদিন বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। সম্প্রতিক ইয়াবা বিক্রয় কালে উপজেলার বিহারীপুর, আত্রাই নতুন বাজার এলাকা থেকে গত শনিবার সুমন আহম্মেদ, আল-হেলাল হিরো, ১৩ পিস ইয়াবা ৫গ্রাম হিরোইন ও ৪ পিস এ্যাম্পুল সহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর