মহিষ হলো গরু, ডাস্টবিনে গেল রসগোল্লা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃরাজধানীর মিরপুরে র‌্যাবের কাছে জব্দ হয়েছে বেশ কিছু অসাধু দোকানি ও ব্যবাসায়ী। যারা মহিষের মাংসকে গরুর মাংস বলে বিক্রিসহ অতিরিক্ত দাম রাখতেন। অপরদিকে অস্বাস্থ্যকর, নোংরা পরিবেশে চার মাস যাবত একই রস ব্যবহার ও রাসায়নিক দ্রব্য সংমিশ্রণে মিষ্টি তৈরি করতেন।

শুক্রবার (৮ জুন) মিরপুর-১১ নম্বরে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এসময় একটি মিষ্টির কারখানাকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানাসহ কারখানাটি বন্ধ করেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালাত। অপরদিকে চার মাংস ব্যবসায়ীকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযান শেষে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, `অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে চার মাস যাবত একই রস ব্যবহার এবং রাসায়নিকদ্রব্য সংমিশ্রণে তৈরি পাবনা থেকে আনা ছানা দিয়ে মিষ্টি তৈরি করায় রাজধানীর মিরপুর ১১ নং সেক্টরের একটি মিষ্টির কারখানাকে সাড়ে তিন লাখ টাকা এবং মহিষের মাংস কে গরুর মাংস বলে বিক্রয় , গরু ও ছাগলের মল সহ পা মাংসের সাথে ফ্রিজে সংরক্ষণ এবং সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্যে বিক্রয় সহ বিভিন্ন অনিয়মের কারণে চার মাংস বিক্রেতাকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়াও ১১ মণ নষ্ট মিষ্টি জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।`

তিনি আরো জানান, মিষ্টির ওই কারখানা থেকে বিক্রমপুর, ভাগ্যকুল ,মুসলিম সুইটসসহ ৮টি প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন শাখায় সরবরাহ করা হয়। মিষ্টির কারখানাটি বন্ধ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here