বিএম কলেজের ছাত্রী নিয়ে প্রভাষক পথিক মোস্তফা লাপাত্তা

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক আলোকিত বরিশাল পত্রিকার সম্পাদক, আগৈলঝাড়া শহীদ
আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক কাশিপুর নিবাসী
গোলাম মোস্তফা ওরফে পথিক মোস্তফা বিএম কলেজের এক ছাত্রীকে নিয়ে অজানার
উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছে।

গত ২ জুন থেকে একই সাথে উক্ত ছাত্রী ও পথিক মোস্তফা নিখোঁজ থাকলেও এ ঘটনার
নায়ক পথিক মোস্তফার জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে গত ৪ জুন নিখোঁজ সেই
ছাত্রীর পিতা বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেছে। একই সাথে এ
বিষয়ে তিনি বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, বরিশাল পুলিশ সুপার ও র‌্যাব-৮
কে লিখিতভাবে অবহিত করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন।

সূত্রে জানা গেছে, বাকেরগঞ্জের বাসিন্দা মোঃ মিজানুর রহমান ডাকুয়ার কন্যা
মৌমিতা বিনতে মিজান (২২) বিএম কলেজের প্রানী বিদ্যা বিভাগের মাস্টাসের ছাত্রী।
পড়াশুনার সুবাদে ২০নং ওয়ার্ডস্থ বিএম কলেজ সংলগ্ন ‘শাহানা মহলে’র ৬ষ্ঠ তলায়
বসবাস করে আসছিল। একই সাথে গত ২ মাস পূর্বে বরিশালের স্থানীয় দৈনিক আলোকিত
বরিশাল পত্রিকায় স্টাফ রিপোর্টার হিসাবে কর্মরত ছিল সে।

আলোকিত বরিশাল পত্রিকায় মিতা রহমান নামে পরিচিত ছিল মেয়েটির এবং এই নামে তার
লেখা রিপোর্ট প্রকাশ হত। গত ২ জুন মৌমিতা বিনতে মিজানের ব্যবহৃত ০১৬৭৮-৭৪৪৪০৪
নম্বরের মুঠোফোনটি বন্ধ পায় তার পরিবার। ৩ মে মৌমিতার পিতা মোঃ মিজানুর রহমান
ডাকুয়া বাকেরগঞ্জ থেকে বরিশালে তার বসবাসকারী ম্যাসে ও তাদের সকল আত্মীয়
স্বজনদের বাসায় খোঁজ খবর নেয়।

কিন্তু কোন স্থানে কণ্যার সন্ধান করতে না পেরে এবং মেয়ের ঘনিষ্ট বান্ধুবীদের
কথায় কিছুটা আচঁ করতে পেরে কর্মস্থল দৈনিক আলোকিত বরিশাল পত্রিকার অফিসে আসেন।
কিন্তু সেখানে এসে জানতে পারেন পত্রিকার সম্পাদক পথিক মোস্তফাও ২ জুন থেকে
অফিসে আসছেন না। একই সাথে তার কাশিপুরস্থ বাসায়ও নেই।

তাই কণ্যার সন্ধান চেয়ে গত ৪ জুন বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় একটি জিডি করেন
নিখোঁজ মৌমিতা বিনতে মিজানের পিতা মোঃ মিজানুর রহমান ডাকুয়া। যার নং-২২৮।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দৈনিক আলোকিত বরিশালের এক স্টাফ ও মৌমিতার এক ঘনিষ্ট
বান্ধবি জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিএম কলেজ পড়–য়া মৌমিতা বিনতে মিজানের সাথে পথিক
মোস্তফার সাথে পরোকিয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। ব্যাক্তি জীবনে পথিক
মোস্তফা ২পূত্র সন্তানের জনক।

অপর একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, বিএম কলেজ ব্রজমোহন থিয়েটার ও বাংলাদেশ উদীচী
শিল্পীগোষ্ঠী সদস্য বিএম কলেজ ছাত্রী মৌমিতা বিনতে মিজানের সাথে পথিক মোস্তফা
দীর্ঘদিন ধরে পরোকিয়া প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছিল। নিখোঁজ ছাত্রীর পিতা
সাংবাদিকদের  জানান, আলোকিত বরিশালের সম্পাদক পথিক মোস্তফা আমার মেয়ে মৌমিতাকে
নিয়ে পালিয়ে গেছে। সম্ভবত তাকে প্রতারনা, মিথ্যা প্রলোভন অথবা জিম্মি করে
অপহরন করেছে সে।

ধারনা করা হচ্ছে লুচ্ছা পথিক মোস্তফা আমার মেয়েকে ধর্ষণ, পাচার, গুম, খুন
কিংবা বেআইনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ করতে পারে। আমি এব্যাপারে ইতিমধ্যে বরিশাল
পুলিশ কমিশনার, বরিশাল পুলিশ সুপার, র‌্যাব ৮ এ অভিযোগ দায়ের করেছি। তারা
বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছেন বলে জানিয়েছেন। এব্যাপারে আদালতে মামলা দায়েরের
প্রস্তুতিও চলছে বলে জানান নিখোঁজ মৌমিতার পিতা মোঃ মিজানুর রহমান ডাকুয়া।
এব্যাপারে পথিক মোস্তফার প্রতিক্রিয়া জানতে তার ব্যবহৃত ০১৭১২৯২৬৮৩৬ নম্বরের
মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here