বরিশালে ছেলেকে বেঁধে রেখে মাকে ধর্ষণ!

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  ছেলেকে বেঁধে রেখে মাকে ধর্ষণ করার অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ জুন) বরিশাল জেলা জজ আবু শামীম আজাদ বিচারাধীন বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলাটি দায়ের হয়। ধর্ষিতা বাদী হয়ে ধর্ষক বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরমহিষা এলাকার ইদ্রিস চৌকিদারকে অভিযুক্ত দেখিয়ে মামলা দায়ের করেন।

অভিযোগে ধর্ষিতা আদালতে বলেন, তার স্বামী পেশায় একজন জেলে। তিনি প্রায়শই মাছ ধরার কাজে নদীতে থাকেন। দুই নাবালক সন্তান নিয়ে তিনি বাড়িতে থাকেন। অভিযুক্ত ইদ্রিস একজন লম্পট প্রকৃতির লোক। কিছুদিন পূর্বেও তার সুন্দরী মেয়েকে ধর্ষণ করে শালিস বৈঠকে শাস্তিও ভোগ করছে। সে একই গ্রামের প্রতিবেশী হওয়ায় প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিত। স্বামীকে একথা জানালে তিনি ক্ষিপ্ত হয়। গত ৫ জুন প্রতিদিনের মত তিনি সন্তান নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে।

রাত দুইটার দিকে দিকে ইদ্রিস তাদের পাতার বেড়া কেটে ঘরে ঢুকে দরজা খুলে। টের পেয়ে কে বলে চিৎকার দিলে তার মুখ চেপে ধরে হত্যার হুমকি দিয়ে উঠানে নামায়। ছেলে টের পেয়ে চিৎকার শুরু করলে তাকে রশি দিয়ে খুঁটির সাথে বেধে রাখে। বাদীকে হত্যার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে।

ধর্ষিতা ডাক-চিৎকার দিলে তাকে হত্যার হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি। এভাবে অভিযোগ দায়ের করলে আদালত চরমহিষা গ্রামের ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বরকে তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন আদালত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here