মেসির হাতেই উঠবে বিশ্বকাপ শিরোপা!

ঢাকা: দুয়ারে কড়া নাড়ছে ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর। ১৪ জুন থেকে রাশিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’-এর একুশতম আসর। চলছে দলগুলোর শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। বিশেষজ্ঞরাও একের পর এক বিশ্লেষণ করে যাচ্ছেন বিভিন্ন বিষয়ে। তৈরি হচ্ছেন সমর্থকরাও। প্রতিবারের মতো এবারও শুরু হয়েছে ভবিষ্যত দ্রষ্টাদেরও বার্তা দেয়া। যার যার মতো করেই দিয়ে যাচ্ছেন ভবিষ্যৎবাণী। তেমনই এক ভারতীয় জ্যোতিষী জানিয়েছেন, আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসির হাতেই উঠবে এবারের শিরোপা।

কিছুদিন আগে অস্ট্রিয়ার সংখ্যাতত্ববিদরা অঙ্ক কষে দাবি করছিলেন ব্রাজিলই হবে এবারের চ্যাম্পিয়ন। এবার আর্জেন্টিনা ভক্তদের জন্য সুখবর দিলেন গ্রিনস্টোন লোবো নামে এক ভারতীয় জ্যোতির্বিজ্ঞানী। তার দাবি, এ বছর বিশ্বকাপ জিতবে সেই দেশই যে দেশের অধিনায়কের জন্ম ১৯৮৬ বা ১৯৮৭ সালে৷ তার মতে, ওই বছরে জন্মালে গ্রহ নক্ষত্র বাড়তি সুবিধা পাইয়ে দেবে অধিনায়কদের।

ভারতীয় গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে লোবো জানিয়েছেন, ব্রাজিলের কোনো সম্ভাবনা নেই, কারণ পাঁচবারের বিশ্বসেরাদের নতুন অধিনায়ক হিসেবে শনিবার ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামা গ্যাব্রিয়েল জেসুসের বয়স ২১।

তার হিসেব অনুযায়ী, সম্ভাবনা নেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরও। কারণ রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলা পর্তুগালের এই ফরোয়ার্ডের জন্ম ১৯৮৫ সালে। তবে এই বছরের মধ্যে জন্ম নেয়া অধিনায়ক আছেন আর কে কে? জন্ম সালের হিসেবে এই তালিকায় অনেক অধিনায়কই আছেন। তবে এদের অধিকাংশই বিশ্বকাপ জয়ের উপযুক্ত তালিকায় ধরা হয় না।

চারটি দলের অধিনায়কের জন্ম ১৯৮৬ বা ১৯৮৭ সালে। তারা হলেন, জার্মানির ম্যানুয়েল নয়্যার, ফ্রান্সের হুগো লরিস, স্পেনের সার্জিও রামোস এবং আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি।

তবে এই চার অধিনায়কের মধ্যে লোবোর মতে মেসিই পাবেন শিরোপা। এই জ্যোতির্বিজ্ঞানীর যুক্তি, জার্মান অধিনায়ক ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ জিতেছেন তাই, এ বছর তার সুযোগ কম। গ্রহ নক্ষত্রের বিচারে যে বাড়তি সুবিধা পাবার কথা ছিলো নয়্যার আগের বারই তা পেয়ে গেছেন।

বাকি তিনটি দল। রামোস ২০১০ সালে বিশ্বকাপ জয় ছাড়াও রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়ক হিসেবে চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন লিগের শিরোপাও জিতেছেন ৩২ বছর বয়সী এই তারকা। তাই তার সুযোগও কম। লোবোর দাবি, ফ্রান্স এবং আর্জেন্টিনা দুটি দলেরই প্রায় সমান সুযোগ রয়েছে বিশ্ব সেরা হবার।

তবে, ইউরোপের দেশ ফ্রান্সের থেকে এগিয়ে আছে আর্জেন্টিনা। কারণ, ফ্রান্স ১৯৯৮ সালে ফুটবলা বিশ্বকাপ জিতে নিয়েছে। সে তুলনায় অধিনায়ক মেসি এখনও বড় কোনও ট্রফি জয় করতে পারেননি। তাই অঙ্কের বিচারে এবার আর্জেন্টিনারই চ্যাম্পিয়ন হওয়া উচিত।

আর্জেন্টিনা ভক্তদের জন্য আরও ভালো খবর হলো, এর আগেও একাধিকবার লোবোর ভবিষ্যদ্বাণী মিলে গিয়েছে। বলিউডের তারকাদের নিয়ে প্রায়ই ভবিষ্যদ্বাণী করেন তিনি। এমনকি ভারতীয় ক্রিকেটাররাও তার দ্বারস্ত হন। ২০১০ সালে স্পেন এবং ২০১৪ সালে জার্মানি চ্যাম্পিয়ন হবে সেটিও আগেই বলেছিলেন লোবো, এমনটাই তার দাবি।

এবার দেখার অপেক্ষা লোবোর ভবিষ্য‍ৎবাণী সঠিক হয় কিনা!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here