ফেসবুকে বন্ধুত্ব, বন্ধুর বাসায় নিয়ে ধর্ষণ

জামালপুর প্রতিনিধি: ফেসবুকে পরিচয়ে বন্ধুত্বের ফাঁদে পড়ে ধর্ষণের শিকার হলো জামালপুর সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের এক ছাত্রী। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার রুবেলের বাড়ি জামালপুর শহরের ব্রহ্মপুত্র নদের নাওভাঙ্গা চরে। সে আজগর আলীর ছেলে। তার সহযোগী রাফির বাড়ি মাদারগঞ্জ উপজেলায়। সে চন্দ্রা মিয়াপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকে।

অভিযোগে জানা গেছে, জামালপুরের বেলটিয়া খুপিবাড়ী এলাকার কলেজছাত্রী ফেসবুকে রুবেলের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়। সে জামালপুর সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। নাওভাঙ্গা চরের রুবেল তাকে দেখার করার বলে। তার কথা মতো প্রাইভেট পড়ার কথা বলে ঐ ছাত্রী বাসা থেকে বের হয়। আগস্টের ১ তারিখ দুপুরে রুবেল তাকে শহরের চন্দ্রাঘুন্টি এলাকায় একটি রেস্টুরেন্টে নিয়ে যায়। ওখানে আড্ডা দিতে রাজি না হওয়ায় রুবেল চন্দ্রা মিয়াপাড়ার বন্ধু রাফির ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। বাসায় গিয়ে রুবেলের আচরণ দেখে সন্দেহ হলে সে ওখান থেকে চলে আসতে চায়। এক পর্যায়ে চিৎকার দেয়ার চেষ্টা করলে বখাটে রুবেল তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা বাবা-মা’র কাছে জানায়। পরদিন দুই আগস্ট বাবা জামালপুর সদর থানায় মামলা করেন। এ মামলায় রুবেল, রাফিকে আসামি করা হয়।

জামালপুর সদর থানার এসআই ফয়সাল বলেন,গ্রেফতার দুজনকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here