মেয়েকে ফিরে পেতে বাবার আকুতি

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীতে একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে দিশেহারা সুরেশ তেলের স্বত্বাধিকারী সুধীর চন্দ্র সাহার পরিবার। তাই মেয়েকে ফিরে পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্বজনরা।

শুক্রবার দুপুরে শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ আবেদন জানান।

সংবাদ সম্মেলনে সুধীর চন্দ্র সাহা বলেন, একমাত্র সন্তান লিমা সাহাকে পুঁজি করে আমার সম্পদ হাতিয়ে নেয়ার ষড়যন্ত্র করছে শহরের একটি বিতর্কিত পরিবার। পরিকল্পিতভাবে ওই পরিবারের ছেলে সৈকত পাল আমার মেয়েকে বিপদগামী করে। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হলে লিমাকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেয়।

সুধীর বলেন- ২৪ মে লিমা বিমানে ঢাকায় ফেরেন। তার জন্য বিমানবন্দরের রিসিপশনে অপেক্ষা করছিলেন সবাই। এ সময় সৈকত সহযোগীদের নিয়ে লিমাকে বিমানবন্দরের ভিআইপি গেট দিয়ে বের করে নেয়। এরপর কোর্টে নিয়ে লিমাকে বিয়ে করে। পরবর্তীতে পুলিশের সহযোগীতায় লিমাকে উদ্ধার করে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকার একটি বেসরকারি চিকিৎসাকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। কিন্তু ওই পরিবারের সার্চ ওয়ারেন্ট মামলায় পুলিশ চিকিৎসাকেন্দ্র থেকে লিমাকে আদালতের মাধ্যমে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠিয়েছে। এই ক্ষেত্রে পরিবারের মতামতকে গ্রহণ করেনি আদালত।

সুধীর সাহা আরো বলেন, আইনের কিছু বিধি বিধানের কারণে ১৮ বছরের পর সন্তানের উপর কোন অধিকার থাকে না জন্মদাতা মা-বাবার। আর এই আইনের সুযোগ নিয়ে তাঁরা আমার মেয়ের জীবনকে ধ্বংস করছে। আমার মেয়ে আজ অন্ধকার কারাগারে দিন কাটাচেছ। তাঁর জীবন আজ সংকটে। মেয়ের কারণে তার মাও আজ অসুস্থ্য। আমার দীর্ঘদিনের গড়ে তোলা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের উপক্রম। মানুষের জন্য আইন, আমি আমার একমাত্র মেয়েকে ফিরে পেতে চাই। এইজন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোরশেদ শাহারিয়ার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম এ আওয়াল, নরসিংদী জেলা টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসেয়িশনের সাধারণ সম্পাদক বদরুল আমিন চৌধুরী প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here