রাস্তা সংস্কারের অভাবে চরম ভোগান্তিতে ৮ গ্রামের মানুষ

বাগেরহাটপ্রতিনিধিঃ বাগেরহাট সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের সুলতানপুর সরকারি প্রাইমারি স্কুল থেকে মুনিগঞ্জ খেয়া ঘাট পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কারের অভাবে চরম ভোগান্তিতে হাজার হাজার মানুষ । যানবাহন চলাচলে অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে রাস্তাটি । ঝুকিপূর্ণ রাস্তায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা । রাস্তাটি দ্রুত সংস্কারের দাবি এলাকাবাসির।

স্থানীয়রা জানান, সুলতানপুর, ভাটসালা, বানিয়াগাতি, তালেশ্বর, রথখোলা, কোন্ডলাসহ প্রায় ৮-১০টি গ্রামের ২০ থেকে ২৫ হাজার লোকের যাতায়তের একমাত্র রাস্তা। ভ্যান, ইজিবাইক, করিমন যোগে এই রাস্তায় প্রতিদিন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী যাতায়ত করে। বর্তমানে রাস্তার করুণ দূরবস্থার কারণে কোন যানবাহন চলতে পারে না।

বর্ষা মৌসুমে একটু বৃষ্টি হলেই এখানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় এবং নদীর জোয়ারেরে সময় রাস্তাটি পানিতে তলিয়ে যায়। রাস্তাটি বেশি ঝুঁকিপূর্ণ ও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।

সুলতানপুর ইজি বাইক ও অটোভ্যান সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ ওবায়দুল শেখ বলেন, জনপ্রতিনিধিরা রাস্তাটি সংস্কার করার আশ্বাস দিলেও কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।

বাগেরহাট জেলা পরিষদ সদস্য ইব্রাহীম হোসেন মোল্লা স্থানীয় কিছু সংখ্যক খেটে খাওয়া মানুষকে সংঘবদ্ধ করে রাস্তাটি ইট, বালি দিয়ে সংস্কারের চেষ্টা করছে । বিগত বছরগুলোতে তিনি রাস্তাটির সংস্কারের কাজটি করেছেন । এ বিষয়ে ইব্রাহীম হোসেন মোল্লা বলেন, রাস্তা দিয়ে চলাচলের কোন পরিবেশ নেই ।

সদর উপজেলার বেমরতা ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন টগর বলেন, রাস্তাটি সংস্কারের অভাবে এলাকার লোকজন চরম ভোগান্তির মধ্যে রয়েছে । আশা করছি আগামী শুকনা মৌসুমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে সংস্কারের কাজ শুরু হবে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here