৪-১০ জুন বুস্টার ডোজ সপ্তাহ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আগামী ৪ থেকে ১০ জুন দেশব্যাপী করোনা টিকার বুস্টার ডোজ সপ্তাহ উদযাপনের ঘোষণা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এসময়ে নিকটবর্তী টিকাকেন্দ্রে গিয়ে ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব সবাই বুস্টার ডোজ নিতে পারবেন।

মঙ্গলবার (৩১ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) শাখার এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ১৮ বছর ও তদূর্ধ্ব সবাই দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের চার মাস পার হলে তৃতীয় ডোজ বা বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, আগামী ৪ থেকে ১০ জুন দেশব্যাপী কোভিড ভ্যাকসিন বুস্টার ডোজ সপ্তাহ উদযাপন হবে। এই সাতদিনের যে কোনো দিন নিকটবর্তী টিকাকেন্দ্রে গিয়ে কোভিড ভ্যাকসিনের তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ গ্রহণ করা যাবে। টিকাকেন্দ্রে আসার সময় সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরে আসতে হবে।

সব টিকাকেন্দ্রে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য টিকা কার্ড অবশ্যই সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। বুস্টার ডোজের পাশাপাশি কোভিড ভ্যাকসিন (প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ) দেওয়ার স্বাভাবিক কার্যক্রমও চলমান থাকবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন একটি কার্যকর সমাধান। কোভিড ভ্যাকসিনের সম্পূর্ণ সুফল পেতে হলে অবশ্যই তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ ভ্যাকসিন নিতে হবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আগামী ৪ থেকে ১০ জুন দেশব্যাপী করোনা টিকার বুস্টার ডোজ সপ্তাহ উদযাপনের ঘোষণা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এসময়ে নিকটবর্তী টিকাকেন্দ্রে গিয়ে ১৮ বছর বা তদূর্ধ্ব সবাই বুস্টার ডোজ নিতে পারবেন।

মঙ্গলবার (৩১ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) শাখার এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

 

এতে বলা হয়েছে, এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ১৮ বছর ও তদূর্ধ্ব সবাই দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের চার মাস পার হলে তৃতীয় ডোজ বা বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, আগামী ৪ থেকে ১০ জুন দেশব্যাপী কোভিড ভ্যাকসিন বুস্টার ডোজ সপ্তাহ উদযাপন হবে। এই সাতদিনের যে কোনো দিন নিকটবর্তী টিকাকেন্দ্রে গিয়ে কোভিড ভ্যাকসিনের তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ গ্রহণ করা যাবে। টিকাকেন্দ্রে আসার সময় সবাইকে অবশ্যই মাস্ক পরে আসতে হবে।

সব টিকাকেন্দ্রে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য টিকা কার্ড অবশ্যই সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। বুস্টার ডোজের পাশাপাশি কোভিড ভ্যাকসিন (প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ) দেওয়ার স্বাভাবিক কার্যক্রমও চলমান থাকবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন একটি কার্যকর সমাধান। কোভিড ভ্যাকসিনের সম্পূর্ণ সুফল পেতে হলে অবশ্যই তৃতীয় বা বুস্টার ডোজ ভ্যাকসিন নিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here