টাঙ্গাইলে বন্ধ হলো ১৭ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার

টাঙ্গাইল  প্রতিনিধি:বৈধ কাগজপত্র না থাকায় টাঙ্গাইলে ১৭টি ক্লিনিক সিলগালা করা হয়েছে। একই সঙ্গে জরিমানা করা হয়েছে আরও কয়েকটি ক্লিনিককে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মোতাবেক শনিবার (২৮ মে) দিনব্যাপী অভিযান চালিয়ে এসব ক্লিনিককে সিলগালা ও জরিমানা করা হয়। অভিযান পরিচালনা করে টাঙ্গাইল সদরসহ বিভিন্ন উপজেলার স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক সুপারভিশন ও মনিটরিং বিষয়ে সভায় ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে ওঠা অনিবন্ধিত ক্লিনিক বন্ধে অভিযান শুরুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সে অনুসারে এ অভিযান শুরু করে প্রশাসন। অভিযানের প্রথম দিনেই টাঙ্গাইল শহরে চারটি, মধুপুর উপজেলায় দুটি, ভূঞাপুরে দুটি, মির্জাপুরে দুটি, ঘাটাইলে একটি ও গোপালপুরে ছয়টি অনিবন্ধিত ক্লিনিক সিলগালা করা হয়।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রানু আরা খাতুন বলেন, বৈধ কাগজ-পত্র না থাকায় পৌর শহরের স্বদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, পদ্মা ক্লিনিক, আমানত ক্লিনিক অ্যান্ড হসপিটাল ও ডিজিল্যাব সিলগালা করা হয়েছে। এ ছাড়া কমফোর্ট হসপিটালকে ৩০ হাজার, দি সিটি হাসপাতালকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান বলেন, বৈধ কাগজপত্র না থাকায় প্রথম দিনের অভিযানে টাঙ্গাইল সদরসহ বিভিন্ন উপজেলায় ১৭টি ক্লিনিক সিলগালা করা হয়েছে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে বেশ কয়েকটি ক্লিনিককে জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here