কখন কোথায় ঈদের জামাত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃএক মাস সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে বিদায় নিতে যাচ্ছে পবিত্র কোরআন নাজিলের মাস মাহে রমজান। করোনার কারণে গত দু’বছর বিধিনিষেধের মধ্যে উন্মুক্ত স্থানে ঈদের জামাত পড়া যায়নি, মসজিদে পড়তে হয়েছে। তবে এবছর মসজিদের পাশাপাশি উন্মুক্ত স্থানেও হবে ঈদের জামাত। সে লক্ষ্যে রাজধানীতে ঈদ জামাতের প্রস্তুতিও প্রায় শেষ পর্যায়ে।

রাজধানীতে কখন কোথায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে তা পঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো…….

জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায়

আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে রাজধানীর হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। আবহাওয়া প্রতিকূল থাকলে ঈদের প্রধান জামাত সকাল ৯টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে অনুষ্ঠিত হবে বলে এরই মধ্যে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে।

বায়তুল মোকাররমে ৫ জামাত

প্রতি বছরের মতো এবারও পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পর্যায়ক্রমে ঈদের নামাজের ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা, ১০টা ও ১০টা ৪৫ মিনিটে বায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায়। এতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান। মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মোকাররম মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ মো. ইসহাক।

দ্বিতীয় জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। এতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিবুল্লাহিল বাকী নদভী। মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মুকাররমের সাবেক মুয়াজ্জিন হাফেজ মো. আতাউর রহমান।

৯টার তৃতীয় জামাতের ইমাম হবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফাসসির মাওলানা আবু সালেহ পাটোয়ারী। খাদেম হাফেজ মো. নাছির উল্লাহ এই জামাতের মুকাব্বির থাকবেন।

ঈদের চতুর্থ জামাত হবে সকাল ১০টায়। এতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক। মুকাব্বির থাকবেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খাদেম মো. শহিদ উল্লাহ।

এছাড়া পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত অনুষ্ঠিত হবে ১০টা ৪৫ মিনিটে। এতে ইমাম থাকবেন বায়তুল মোকারমের পেশ ইমাম মাওলানা মুহিউদ্দিন কাসেম। মুকাব্বির হবেন খাদেম মো. রুহুল আমিন।

পাঁচটি জামাতে কোনো ইমাম অনুপস্থিত থাকলে বিকল্প ইমাম হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুফতি মাওলানা মো. আব্দুল্লাহ।

সংসদে ভবনে ঈদের জামাত সকাল সাড়ে ৮টায়

সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। সংসদের চিফ হুইপ, হুইপ, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, সংসদ সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীসহ এলাকার মুসল্লিরা এ জামাতে অংশ নেবেন। এ জামাত সবার জন্য উন্মুক্ত। আগ্রহী মুসল্লিদের জামাতে অংশ নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বুয়েটে ঈদ জামাত সোয়া ৭টায়

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ঈদুল ফিতরের নামাজের জামাত সোয়া ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

জমঈয়তে আহলে হাদিসের ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। এই জামাতে ইমামতি করবেন বংশাল বড় জামে মসজিদের খাতিব শাইখ মুহাম্মাদ মোস্তফা সালাফি।

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ৫টি জামাত

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ঈদুল ফিতরের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৭টায় প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে বড়মসজিদ বা মারকাজুল ফিকহিল ইসলামীতে, সকাল সোয়া ৭টায় উম্মে কুলসুম জামে মসজিদ (সি ব্লক), সকাল সাড়ে ৭টায় এফ ব্লক জামে মসজিদে, সকাল ৮টায় বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদ (জি ব্লক), সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে ফকিহুল মিল্লাত জামে মসজিদে (এন ব্লক) জামাত হবে।

গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদে ঈদের ৩টি জামাত

গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদে ঈদের নামাজের তিনটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ভোর ৬টা, সকাল ৭টা ৩০ ও ৯টায় জামাত অনুষ্ঠিত হবে সেখানে।

রাজধানীর ধানমন্ডি তাকওয়া মসজিদে ঈদের নামাজের দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম জামাত সকাল ৭টা ৩০ মিনিট ও দ্বিতীয় জামাত সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ধানমন্ডি ঈদগাহ জামে মসজিদে একটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়।

রাজধানীর মিরপুর দারুস সালাম এলাকার মীর বাড়ি আদি (মাদবর বাড়ি) জামে মসজিদে প্রথম জামাত সকাল ৭টা ৩০ ও দ্বিতীয় জামাত সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে। মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের হারুন মোল্লাহ্ ঈদগাহে সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

রাজধানীর মতিঝিলের আরামবাগে দেওয়ানবাগ শরিফের উদ্যোগে সকাল ৮টায় ও সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here