নিজবাড়িতে প্রকৌশলীর স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃকুষ্টিয়া শহরের হাউজিং ‘ডি’ ব্লকে শেফালী বিশ্বাস নামে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকালে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছাব্বিরুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে শহরের হাউজিং ‘ডি’ ব্লকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের পরিবারের দাবি, শেফালীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শেফালী বিশ্বাস কুষ্টিয়া শহরের হাউজিং ‘ডি’ ব্লক এলাকার পিডিবির অবসরপ্রাপ্ত প্রকৌশলী আনন্দ কুমার বিশ্বাসের স্ত্রী।

নিহতের স্বামী আনন্দ কুমার বিশ্বাস বলেন, আমরা দোতলায় থাকি। আমার স্ত্রী শেফালী সেখানেই ছিল। চারতলায় নির্মাণকাজ চলছে। আমি মিস্ত্রিদের সঙ্গে সেখানেই ছিলাম। বাসায় নেমে দেখি আমার স্ত্রী পড়ে আছে। তার শাড়ি ও শরীর পোড়া। আঘাতের চিহ্নও আছে। ঘরে রক্ত ও ছাই পড়ে আছে।

তিনি আরও বলেন, শেফালীকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। কিছুক্ষণ পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমার মনে হচ্ছে এটি একটি হত্যাকাণ্ড। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে। আমি খুনিদের বিচার চাই।

নিহতের ভাই দীপক বিশ্বাস দাবি করেছেন, আগুনে শরীরের সামান্য অংশ পুড়েছে। এতে একজনের মৃত্যু হতে পারে না। এর মধ্যে কোনো রহস্য আছে। এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। আমি হত্যাকারীদের বিচার চাই।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে সিআইডির পরিদর্শক স্বপন কুমার বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। ঝিনাইদহ থেকে সিআইডির বিশেষজ্ঞ দল এসে আলামত সংগ্রহ করেছে। তদন্ত চলছে, বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ছাব্বিরুল আলম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here