পটুয়াখালীতে সাত বছরের শিশু হত্যা মামলার বাদীকে হুমকীর প্রতিবাদে মানববন্ধন

 

সাঈদ ইব্রাহিম,পটুয়খালীঃপটুয়াখালীতে সাত বছরের শিশু ফাহাত হত্যা মামলার এজাহার নামীয় আসামীদের কর্তৃক মামলা তুলে নিতে বাদী ও তার আত্নীয়দেরকে প্রাননাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে শিশু ফাহাতের স্বজনসহ এলাকাবাসী।

১৬ এপ্রিল শনিবার দুপুর ১২ টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে পটুয়াখালী পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের টাউন জৈনকাঠী নিবাসী দিনমজুর শ্রমিক জাফর হাওলাদারের ৭ বছরের শিশু রাহাত হত্যা মামলার এজাহার নামীয় আসামী সৈয়দ আলাউদ্দিন (৫৫), সৈয়দ ফকরুল(৪২), সৈয়দ আলমগীর(৩৮), সৈয়দ জাকির(৩০) জামিনে মুক্ত হয়ে মামলা তুলে নিতে বাদী (নিহত ফাহাতের বাবা) জাফর হাওলাদারকে সহ মামলার সাক্ষীদেরকে হত্যা, খুন, জখমের হুমকির প্রতিবাদে নিহত শিশু ফাহাতের মা সায়িদা বেগম, দাদী আছিয়া বেগম, দাদ আউয়াল হাওলাদার, ফুফু আনোয়ারা বেগম, দুই বোন ফারজানা ও ফারিয়া বেগমসহ এলাকার শতাধিক নারী- পুরুষ মানববন্ধন করেন।
মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারী নিহত ফাহাতের মা, বাবা, দাদা, দাদী, বোনরাসহ এলাকাবাসী অবিলম্ভে শিশু ফাহাত হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শান্তির দাবী করেন। তারা খুনীদের বিচার চান।

উল্লেখ্য, মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানাযায়, নিহত শিশুর পরিবারের সাথে আসামীদের সাথে দীর্ঘদিন পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। ইতিপূর্বে আসামীরা জাফর হাওলাদারের গরু, ছাগল মেরে নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছে এবং তাকে (জাফরকে) একাধিকবার মারধর করেছে। এ অবস্থায় গত ০৩.১২.২০২০ ইং তারিখ বিকালে টাউন জৈনকাঠী কে এন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১ম শ্রেনীর শিশু ফাহাত খেলতে যায়। ঐদিন ফাহাত বাসায় ফিরে না আসায় দিন-রাত গ্রাম ও এলাকাসহ শহরে অনেক খোজাখুজি করে রাতে মাইকিং করে শিশু পুত্রকে না পেয়ে ০৪.১২.২০২০ তারিখ সদর থানায় একটি সধারন ডায়েরী করেন বাবা জাফর হাওলাদার। পাঁচদিন পর ০৮.১২.২০২০ তারিখ দুপুর দেড় ঘটিকার সময় জনৈক পথচারী মারজুক মীরার বাড়ির সামনের পরিত্যক্ত ডোবায় একটি লাশ দেখে আশপাশের লোকজনকে জানায়। এ খবর পেয়ে জাফর হাওলাদার দৌড়ে গিয়ে ডোবা থেকে ছেলে ফাহাতের লাশ উদ্ধার করে। এ সময় ফাহাতের মাথায়, বুকে এবং তলপেটে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পায়। ফাহাত নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে উল্লেখিত আসামীরা পলাতক ছিল। পুলিশ পোস্ট মর্টেম শেষে লাশ দাফন করে। এ ঘটনায় ছেলে হারা বাবা জাফর হাওলাদার থানায় মামলা করতে গেলে থানার কর্তৃপক্ষ পূর্বের দেয়া স্বাক্ষরের মাধ্যমে অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে মর্মে নতুন করে মামলা নিতে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করে (মামলা নং ৫৮, তারিখ ০৮.১২.২০২০)।
পরবর্তীতে জাফর হাওলাদার বাদী হয়ে পটুয়াখালীর বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট ১ম আমলী আদালতে সৈয়দ আলাউদ্দিন (৫৫), সৈয়দ ফকরুল(৪২), সৈয়দ আলমগীর(৩৮), সৈয়দ জাকির(৩০)৷ সেলিম হাওলাদার (৫০), হারুন সিকদার(২২), আকলিমা বেগম(৪৮) কে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। সিআর মামলা নং ১০০১, তারিখ ১৩.১২.২০২০। এ মামলায় উক্ত আসামীরা হাইকোর্ট থেকে জামিন লাভ করে। পরবর্তীতে আসামীরা পটুয়াখালীর উক্ত আদালতে হাজির হলে তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরন করেন বিজ্ঞ বিচারক।

মানববন্ধনে নিহত শিশু ফাহাতের বাবা জাফর হাওলাদার জানান, আসামীরা জামিনে মুক্ত হয়ে মামলা তুলে নিতে তাকে ও তার আত্নীয়দেরকে হত্যা খুনের হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনা পুলিশকে জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন বাদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here