বরিশালে স্ত্রীর মামলায় চিকিৎসক কারাগারে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃবরিশালের গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. টিপু সুলতানকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তার স্ত্রী ডা. মিলাদুজ্জামান ইরার দায়ের করা মারধর ও যৌতুক মামলায় তাকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করা হয়।

গৌরনদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আফজাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ডা. মিলাদুজ্জামান ইরা ও তার স্বামী ডা. টিপু সুলতান উভয়েই গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত। গ্রেফতারের পর আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

বরিশাল জেলা সিভিল সার্জন ডা. মারিয়া হাসান বলেন, গৌরনদী থানা থেকে মামলার বিস্তারিত আমাকে অবহিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে। তবে এ ব্যাপারে আমাদের হস্তক্ষেপ করার কিছু নেই।

জানা গেছে, ২০২১ সালের ১৩ আগস্ট গৌরনদী উপজেলার নলচিড়া গ্রামের বাদশা ফকিরের ছেলে ডা. টিপু সুলতানের সঙ্গে বিয়ে হয় কুমিল্লা দক্ষিণ সদর উপজেলার দৈয়ারা গ্রামের আব্দুল আলিমের মেয়ে ডা. মিলাদুজ্জাহান ইরার সঙ্গে।

ডা. ইরা অভিযোগ করে জানান, ১০ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য স্বামী ডা. টিপু সুলতান তাকে প্রায়ই মারধর করত এবং প্রাণনাশের হুমকি দিত। নিরুপায় হয়ে মঙ্গলবার রাতে তিনি যৌতুকের জন্য মারধর ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে গৌরনদী থানায় ডা. টিপু সুলতান ও তার বাবা বাদশা ফকিরকে আসামি করে মামলা করেন। রাতেই পুলিশ ডা. টিপু সুলতানকে গ্রেফতার করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here