স্বামীর করাতের আঘাতে অবশেষে মারাই গেলেন সামিনা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃরাজধানীর হাজারীবাগে স্বামী রাজা মিয়ার করাতের আঘাতে আহত সামিনা বেগম (৩৫) মারা গেছেন। বুধবার রাত ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার (১ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৮টায় হাজারীবাগের বেড়িবাঁধ ঝাউচর মডেল টাউন এলাকায় সামিনাকে পেটে করাত দিয়ে আঘাত করেন স্বামী রাজা মিয়া। পরে তাকে ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়।

নিহত সামিনার দুলাভাই জাকির হোসেন বলেন, সামিনা টাইলসের কাজ করতেন ও রাজা মিয়া পেশায় রিকশাচালক। দুজনের মধ্যে প্রায় সময় ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকতো। গত শুক্রবার রাজা মিয়া বাসায় এলে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে রাজা মিয়া গাছ কাটার করাত দিয়ে তাকে পেটে আঘাত করেন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। বুধবার রাতে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সামিনা।

তিনি জানান, রাজা মিয়া মাদকাসক্ত ছিলেন। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে। ছেলেমেয়ের ভরণ-পোষণ ও সংসারের নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজারও করে দিতেন না।

তিনি আরো জানান, রংপুর সদর উপজেলার মৃত শের মুহাম্মদের মেয়ে সামিনা বেগম। বর্তমানে হাজারীবাগের বেড়িবাঁধ ঝাউচর মডেল টাউন এলাকার ইকবাল হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। পাঁচ বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here