বন্ধুর জন্মদিনে নিয়ে অন্তরঙ্গ, ভিডিও করে ‘সুযোগ’ নেন বারবার

বগুড়া প্রতিনিধি:স্বামীর সংসার ছেড়ে বাবার বাড়িতেই থাকতেন ৩০ বছরের রিয়া (ছদ্মনাম)। উদ্যোক্তা হওয়ার চেষ্টায় শুরু করেন শাড়ি-পাঞ্জাবির ব্যবসা। আর এ সুবাদে পরিচয় হয় কাপড় ব্যবসায়ী সুজনের সঙ্গে। ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে প্রেম। তবে একদিন বন্ধুর জন্মদিনে রিয়াকে নিয়ে যান সুজন। বিয়ের কথা বলে সেখানেই প্রেমিকার সঙ্গে অন্তরঙ্গ হন প্রেমিক। তবে গোপনে ধারণ করে রাখেন ভিডিও। এ ভিডিও পুঁজি করে স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে বারবার মেলামেশায় বাধ্য করেন সুজন। অবশেষে তাকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

বুধবার ভোরে ঢাকার মহাখালী কাঁচাবাজার এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। ৩৫ বছর বয়সী সুজন কুমার রায় বগুড়া সদর উপজেলার জয়পুরপাড়া এলাকার হরিশংকর রায়ের ছেলে। তিনি পেশায় কাপড় ব্যবসায়ী।

জানা গেছে, স্বামী পরিত্যক্তা ৩০ বছর বয়সী ওই নারী শাড়ি-পাঞ্জাবিতে ব্লক বা ডিজাইনের কাজ করতেন। ব্যবসার সুবাদে প্রায় দুই বছর আগে তার সঙ্গে সুজনের পরিচয় হয়। একপর্যায়ে তারা প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এর মধ্যে একদিন বগুড়া শহরের চকসূত্রাপুর এলাকায় বন্ধুর জন্মদিন অনুষ্ঠানে প্রেমিকাকে নিয়ে আসেন সুজন। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বন্ধুর বাড়িতেই তারা মেলামেশা করেন। তবে কৌশলে অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও মুঠোফোনে ধারণ করে রাখেন প্রেমিক।

এরপর তারা একাধিকবার মেলামেশা করেন। একপর্যায়ে তাদের সম্পর্কে ফাটল ধরে। পরে গোপন সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে ফের মেলামেশা করেন সুজন। সম্প্রতি সেই ভিডিও ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী নারী।

জেলা ডিবি পুলিশের ইনচার্জ মো. সাইহান ওলিউল্লাহ জানান, সুজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here