‘এতিম’ বলায় ব্লেড দিয়ে খুন, গোসলের পর রক্তমাখা জামাকাপড় ধুয়ে ফেলে খুনি বন্ধু

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্কুলছাত্র রাহাত হত্যা মামলায় তারই এক বন্ধুকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। শুক্রবার রাতে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে, বুধবার সকালে ঐ উপজেলার কোকডহরা এলাকা থেকে বল্লা করোনেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র রাহাতের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে রাতেই অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন নিহতের বাবা।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব-১২, সিপিসি-৩ এর কোম্পানি কমান্ডার মো. এরশাদুর রহমান জানান। শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ২২ মার্চ রাতে রাহাত তার বন্ধুর সঙ্গে লুডু খেলছিল। খেলার সময় বন্ধুকে সে কয়েকবার ‘এতিম’ বলে ডাকে। এতে রাহাতের ওপর ক্ষিপ্ত হয় তার বন্ধু। পরে সে বাজার থেকে ব্লেড ও সিগারেট কিনে সিগারেট খাওয়ার কথা বলে রাহাতকে পুকুর পাড়ে নিয়ে যায়। সিগারেট খাওয়া শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ব্লেড দিয়ে রাহাতের গলায় পোচ দেয় বন্ধুটি।

র‍্যাব কর্মকর্তা এরশাদুর রহমান বলেন, ঐ সময় রাহাত চিৎকার দিলে বন্ধুটি মুখ চেপে ধরে আরো কয়েকবার পোচ মারে। পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে কাদার মধ্যে রাহাতের মুখ চেপে ধরে। মৃত্যুর পর লাশ পুকুরে ফেলে দিয়ে রাহাতের মোবাইল নিয়ে বাড়ি চলে যায় সে। বাড়িতে গিয়ে গোসল করে এবং রক্তমাখা জামাকাপড় ধুয়ে ফেলে।

তথ্য-প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে রাহাতের বন্ধুকে আটক এবং তার ঘর থেকে রাহাতের জামাকাপড় ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান র‍্যাব-১২, সিপিসি-৩ এর কোম্পানি অধিনায়ক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here