নানা আয়োজনে সারাদেশে পালিত হচ্ছে স্বাধীনতা দিবস

নিজস্ব প্রতিনিধিঃবিনম্র শ্রদ্ধার মধ্যে দিয়ে সারাদেশে পালন করা হচ্ছে ৫১তম মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস। শনিবার সকাল ৮টায় সারাদেশে একযোগে গাওয়া হয় জাতীয় সংগীত। এছাড়া জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজ ও শিশু-কিশোরদের শরীর চর্চা প্রদর্শন করা হয়। আয়োজন করা হয় বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

গোপালগঞ্জ: জেলার টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে প্রথমে শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা ও পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা।

এরপর বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা জানায় গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদ, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, ‌টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন, টুঙ্গিপাড়া থানা, গোপালগঞ্জ এবং টুঙ্গিপাড়া পৌরসভাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম হেদায়েতুল ইসলাম, পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, ‌জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এমদাদুল হক বিশ্বাসসহ আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী।

গাজীপুর: গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ৩১ বার তোপধ্বনি, ফুলের শ্রদ্ধাঞ্জলি, কুচকাওয়াজ ও মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশসহ নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা দিবস পালন করা হচ্ছে।

এদিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে কালিয়াকৈর উপজেলা প্রশাসন গোলাম নবী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে শহিদ বেদিতে প্রথমে শ্রদ্ধা জানান উপজেলা প্রশাসন নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ।

রাজশাহী: মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবসে বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাজশাহীর সর্বস্তরের মানুষ। এ সময় নগরীর বিভিন্ন শহিদ মিনারে মানুষের ঢল নামে। পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে হৃদয়ের গভীর থেকে বিনম্র শ্রদ্ধা জানানো হয় মাতৃভূমির জন্য প্রাণ উৎসর্গ করা বীর সন্তানদের প্রতি।

ময়মনসিংহ: মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহের কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে ফুলে ফুলে মুক্তিযুদ্ধে বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষ।

ঝালকাঠি: ঝালকাঠিতে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস।

এদিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ মাধ্যমে শহিদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী ও পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, জেলা আওয়ামী লীগ, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ।

ফরিদপুর: নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ফরিদপুরে পালিত হচ্ছে মহান স্বাধীনতা দিবস। দিনটি উপলক্ষে ফরিদপুর শহরের গোয়ালচামট এলাকার স্মৃতিস্তম্ভে ফরিদপুর-৩ আসনের এমপি খন্দকার মোশাররফ হোসেনের পক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান ফরিদপুর সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আব্দার রাজ্জাক।

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়েছে। সকালে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসটির সূচনা করা হয়।

কুমিল্লা: যথাযোগ্য মর্যাদায় কুমিল্লায় পালিত হচ্ছে মহান স্বাধীনতা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সূর্যদোয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিনের কর্মসূচি। নগরীর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এ সময় শ্রদ্ধা জানান স্থানীয় এমপি আ ক ম বাহাউদ্দীন বাহার, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি আনজুম সুলতানা সিমা, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলো।

লক্ষ্মীপুর: যথাযোগ্য মর্যাদায় লক্ষ্মীপুরে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সকালে লক্ষ্মীপুর কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গণে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিফলকে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোসাইন আকন্দ, পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা।

মেহেরপুর: মেহেরপুরে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। সকালে সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্যে দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।

নাটোর: নাটোরে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করা হচ্ছে। ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসটির সূচনা শুরু হয়।

বাগেরহাট: বাগেরহাটে নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হচ্ছে। ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্যে দিয়ে দিবসটির সূচনা হয়। সকাল সাড়ে ৬টায় বাগেরহাট শহরের দশানী এলাকায় শহিদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায় জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here