নারী ইউপি সদস্যকে একসঙ্গে জাপটে ধরলেন দুই পুরুষ সদস্য

বগুড়া প্রতিনিধি:বগুড়ায় ইউনিয়ন পরিষদের এক নারী সদস্যকে যৌন হয়রানির অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার দুজনই সদর উপজেলার নামুজা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য।

মঙ্গলবার দুপুরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে সোমবার মধ্যরাতে ঐ ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার দুই ইউপি সদস্য হলেন রুবেল মিয়া ও বজলুর রশিদ।

জানা গেছে, রোববার নামুজা ইউনিয়ন পরিষদে জনপ্রতিনিধিদের আলোচনা সভা চলছিল। ঐদিন সন্ধ্যায় সভা শেষ হয়। এরপরই ইউপি সদস্য রুবেল ঐ নারীকে হলরুমে ডেকে নেন। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন আরেক ইউপি সদস্য বজলুর রশিদ। রুবেলের ডাকে অভিযোগকারী নারী সদস্য হলরুমে যান। তিনি (নারী) হলরুমে প্রবেশ করা মাত্রই দুই ইউপি সদস্য মিলে তাকে টাকার বিনিময়ে ঘনিষ্ঠ হওয়ার প্রস্তাব দেন। এতে ঐ নারী রাজি হননি। পরবর্তীতে রুবেল ও বজলুর রশিদ একসঙ্গে নারী ইউপি সদস্যকে জাপটে ধরেন। এ সময় নারী সদস্য চিৎকার শুরু করলে তাকে ছেড়ে দেন দুই ইউপি সদস্য। পরদিন সোমবার ঐ নারী তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনাটি ৯৯৯ এ ফোন করে জানান। ফোন পেয়ে সোমবার মধ্যরাতে নামুজা ইউনিয়ন পরিষদে অভিযান চালিয়ে দুই ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সদর থানার ওসি মো. সেলিম রেজা জানান, সোমবার মধ্যরাতে দুই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন ঐ নারী। মামলায় দুজনকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here