অনার্সের ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, সুযোগ পেলেই দিতো কুপ্রস্তাব

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:নারায়ণগঞ্জ সদরে অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রীকে কলেজে যাতায়াতের সময় যৌন হয়রানি ও নানা সময়ে কুপ্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগে শোভন নামক এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত শোভন ফতল্লা থানার শিয়াচর তক্কার মাঠ এলাকার আব্দুল মতিন মিয়ার ছেলে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে রোববার রাতে ভুক্তভোগী ছাত্রী নিজেই শোভনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে নিজ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ভুক্তভোগী ছাত্রী কলেজে যাতায়তের সময় শোভন তাকে উত্যক্ত করতো। একাধিকবার নিষেধ করার পরও নানাভাবে উত্যক্ত ও সুযোগ পেলেই কুপ্রস্তাব দিচ্ছিল। এ অবস্থায় কলেজে যাতায়াত বন্ধ করে দিয়েছিলেন ঐ ছাত্রী। গত ২ মার্চ রাতে তিনি বাড়িতে একা ছিলেন। শোভন তার বাড়িতে গিয়ে দরজায় কড়া নাড়ে। এরপর ঐ ছাত্রী দরজা খুলতেই শোভন ভেতরে ঢুকে তার মুখ চেপে স্পর্শকাতর অঙ্গে হাত বুলাতে শুরু করে। ঐ সময় ভুক্তভোগী ছাত্রী চিৎকার করলে দৌড়ে পালিয়ে যায় শোভন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানি ও উত্ত্যক্ত করার মামলায় শোভনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here