‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন কাল

নিজস্ব প্রতিনিধিঃগণমাধ্যম, সংবাদ, সাংবাদিকতা, জনসংযোগ, ব্রান্ডিং, বিজ্ঞাপন বাজার ও গণমাধ্যম ডিরেক্টরি নিয়ে ১৭৪ পৃষ্ঠার তথ্যভিত্তিক সংকলন ‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন আগামীকাল।

মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় অমর একুশে বইমেলায় গ্রন্থ মঞ্চে ‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি।

বইটির লিখেছেন কৃষিবিদ, ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সালেহ মোহাম্মদ রশীদ অলক।

‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইটিতে গণমাধ্যম, গণমাধ্যমের ধরণ, বাংলাদেশের শীর্ষ বাংলা ও ইংরেজি দৈনিক পত্রিকা, সকল টেলিভিশন চ্যানেল, এফএম রেডিও, শীর্ষ অনলাইন নিউজ পোর্টালের মালিকের নাম ও পরিচয় রয়েছে। বইটিতে বাংলাদেশের সকল শীর্ষ গণমাধ্যমের ঠিকানা, প্রতিষ্ঠানভিত্তিক শীর্ষ কর্মকর্তাদের মোবাইল নম্বর, সকল শীর্ষ গণমাধ্যমের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, নতুন দৈনিক পত্রিকা, অনলাইন নিউজ পোর্টাল, আইপি টিভির নিবন্ধন প্রক্রিয়া ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের বিবরণ, সাংবাদিকের কাজ, যোগ্যতা, ক্যারিয়ার, ক্ষেত্রসমূহ, আয়, সাংবাদিকতায় পড়াশোনা ও বিভিন্ন কোর্স, নিউজ প্রেজেন্টার, আরজে পেশা, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধিনস্থ দফতর, ওয়েজবোর্ড, বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট, গণমাধ্যম সংশ্লিষ্ট সংগঠন, বিট ভিত্তিক সংগঠনের প্রাথমিক তথ্য আছে।

এসবের পাশাপাশি বইটিতে সংবাদ কি, লেখার নিয়ম, সংবাদের উল্টো পিরামিড কাঠামো, টিভি সংবাদ তৈরির কাঠামো, ফিচার, সম্প্রচার সাংবাদিকতার পরিভাষা, বিট রিপোর্টিং, সংবাদপত্রের বিভিন্ন বিভাগ, কর্মরতদের পদবীসমূহ, জনসংযোগ, সংবাদ বিজ্ঞপ্তি লেখা ও প্রেরণের মৌলিক বিষয়, সংবাদ সম্মেলন, খবরের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা প্রদানের পদ্ধতি, মানহানি কি, মানহানি হলে আইনের আশ্রয়, ফৌজদারি আদালতে মানহানির মামলা, প্রেস কাউন্সিল-এ মামলা, চিন্তা, বিবেক ও বাক-স্বাধীনতা নিয়ে সংবিধানের ৩৯তম অনুচ্ছেদের বিবরণ আছে।

বইটি সম্পর্কে লেখক বলেন, গণমাধ্যম আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে। সাংবাদিকতা, জনসংযোগ বা মিডিয়া মার্কেটিং পোশায় কেউ আসতে চাইলে তাকে জানতে হয় সেই সম্পর্কিত প্রাথমিক নানা তথ্য ও খুটিনাটি অনেক বিষয়, যা অনেকে চাইলেও সহজে জানতে পারে না। ব্যবসায়ীরা গণমাধ্যমকে ব্যবহার করেন নিজের পণ্য, প্রতিষ্ঠানকে বা নিজেকে ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে। এর জন্য গণমাধ্যম, জনসংযোগ, ব্রান্ডিং ও বিজ্ঞাপন নিয়ে তাদের জানতে হয়। গণমাধ্যম সম্পর্কে কিছু প্রাথমিক তথ্যও সবার জানা প্রয়োজন। সেই লক্ষ্যেই গণমাধ্যম স্বাক্ষরতার (মিডিয়া লিটারেসি) জন্য এ বই লেখার প্রয়াস। বাংলাদেশের মিডিয়া সংক্রান্ত প্রাথমিক তথ্যের এই সংকলন বাস্তব জীবনে গণমাধ্যমের নানাবিধ ব্যবহারে হাতেখড়িতে সহায়ক হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here