পটুয়াখালীতে থেমে নেই এমিটি অক্সিজেন ব্যাংকের কার্যক্রম সেবা

 

সাঈদ ইব্রাহিম,পটুয়াখালীঃ”মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি কি মানুষ পেতে পারেনা ও বন্ধু”। এই সহানুভূতির হাত বাড়িয়ে দিয়ে
পটুয়াখালীতে ইউনির্ভাসাল এমিটি ফাউন্ডেশনের এমিটি অক্সিজেন ব্যাংক করোনা মহামারীর দুর্দিনে ২৪ ঘন্টা ফ্রি অক্সিজেন সেবা ও সচেতনতা বৃদ্ধি কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তারা। করোনার সূচনালগ্ন থেকে পটুয়াখালী জেলার সকল কভিড ও শ্বাসকষ্টের রোগীদের ইউনির্ভাসাল এমিটি নিঃস্বার্থভাবে অক্সিজেন সেবা দিয়ে চলছে।
পটুয়াখালীর টিম লিডার খন্দকার মোহাম্মদ ত্বহা জানান, করোনা মহামারীর দুর্দিনে এমিটি অক্সিজেন ব্যাংক সকল বয়সের মানুষদেরকে অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছে। আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার কমলেও থেমে নেই তাদের কার্যক্রম। স্বেচ্ছাসেবকরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। গত কয়েকদিন আগে দুই জন শ্বাস কষ্টে ভোগা রোগীদের অক্সিজেন সেবা দেয়া হয়েছে। তার মধ্যে একজন হল একশত বছরের বেশি বয়সের এক বৃদ্ধ মা। তার নাম মোসাম্মৎ সুরাতুন নেছা। তিনি পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার সুবিদখালী বাজার এলাকার বাসিন্দা। আর অপর জন হল পটুয়াখালী পৌরসভার লতিফ স্কুল রোড নিবাসী লুৎফা বেগম (৭৫)। এরা উভয়ই এজমা জনিত কারণে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।
টিম লিডার খন্দকার মোহাম্মদ ত্বহা আরো জানান জেলার সদর উপজেলার আউলিয়াপুর এলাকায় আম্বিয়া খাতুন (৭৩) শ্বাসকষ্টে ভোগা বৃদ্ধা মায়ের বাসা থেকে অক্সিজেনের জন্য এমিটি অক্সিজেন ব্যাংকে যোগাযোগ করা হয়। শ্বাসকষ্টে ভোগা ঐ মায়ের প্রাণ বাঁচাতে এমিটি স্বেচ্ছাসেবীরা তাৎক্ষণিকভাবে অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে পৌঁছে যায় তার বাসায়। এমনিভাবে শহরের লতিফ স্কুল রোড এলাকার মোঃ মুশফিকুর রহমান (৬৩) একজন করোনা জনিত শ্বাসকষ্টের রোগী। তার বাসা থেকেও অক্সিজেনের জন্য যোগাযোগ করা হয়। শ্বাসকষ্টে ভোগা ঐ রোগীর প্রাণ বাঁচাতে তাৎক্ষণিকভাবে তার বাসাতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেয়। এমিটি অক্সিজেন ব্যাংক এর পক্ষ থেকে আমরা সকল করোনা আক্রান্ত রোগীদেরে আশু আরোগ্য কামনা করি এবং সবার কাছে তাদের জন্য দোয়া চাই। তাদের এই সেবা মুলক কাজ সব-সময় চালু থাকবে বলা জানান।
পটুয়াখালী জেলায় এমিটি অক্সিজেন সেবা পেতে কল করুনঃ ০১৭২৬৫১৮৪৪৮. ০১৭৮৮১১৩৮৩০. ০১৬১৬৪৭৮৩০২।
করোনার দুর্দিনে, অন্তিম মুহূর্তে অনেক সময় আপনজনেরা পাশে থাকতে পারেন না এবং অর্থ থাকলেও এসময়ে একটা সিলিন্ডার যোগাড় করা দুর্লভ। কিন্তু মানবিকতার টানে এমিটি অক্সিজেন ব্যাংকের স্বেচ্ছাসেবীরা চরম দুর্দিনে অক্সিজেন সেবা দিয়ে চলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here