অসহায়দের নামে চাঁদা তোলার টাকায় পকেট ভরছে বিএনপি নেতারা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃডেঙ্গু ও করোনাভাইরাসের মতো সংকটময় সময়েও দুর্গতদের সহযোগিতার নামে চাঁদার বাক্স খুলে বসেছে বিএনপি। অসহায়দের কাছে যাওয়ার পরিবর্তে সহায়তা যাচ্ছে দলটির বিভিন্ন সারির নেতাদের পকেটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে, ডেঙ্গু ও করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার নামে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছ থেকে নগদ অর্থ আদায়ের জন্য ত্রাণ কমিটির মাধ্যমে ফান্ড গঠন করেছে বিএনপি। এই ফান্ডে সব কেন্দ্রীয় নেতাদের অর্থ সহযোগিতা প্রদানের জন্য দফতর থেকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এই চাঁদার সর্বনিম্ন পরিমাণ ১০ হাজার টাকা।

চিঠিতে পদ-পদবি ভেদে সর্বনিম্ন অর্থের পরিমাণ উল্লেখ করে সোমবারের মধ্যে অর্থ পরিশোধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের ক্ষেত্রে ৩০ হাজার টাকা ফান্ডে জমা দিতে বলা হয়েছে। এছাড়াও বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, ভাইস চেয়ারম্যান ও যুগ্ম মহাসচিবদের চাঁদা হিসেবে প্রত্যেককে সর্বনিম্ন ২০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সম্পাদক, সহ-সম্পাদকের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫ হাজার এবং নির্বাহী কমিটির সদস্যদের জন্য ১০ হাজার টাকা। তবে যে কেউ চাইলে দল নির্ধারিত সর্বনিম্ন পরিমাণের চেয়েও বেশি টাকা দিতে পারবেন।

এদিকে ত্রাণ সহযোগিতার নামে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের কাছ থেকে জোরপূর্বক এমন চাঁদা উত্তোলন নিয়ে দলের মধ্যে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ। দলের অসন্তুষ্ট নেতারা বলছেন, ত্রাণের নামে চাঁদাবাজি করছেন প্রভাবশালী নেতারা। এই অর্থ যাচ্ছে তাদের পকেটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতা বলেন, দুর্যোগ আসলেই বিএনপি এটাকে কাজে লাগিয়ে দলের আখের গোছায়। সাহায্য-সহযোগিতার নামে মূলত তারা আন্দোলন-সংগ্রামে অর্থ ব্যয় করার জন্য এসব ফান্ড গঠন করে। নামমাত্র কিছু সহযোগিতা দিয়ে ফান্ডের বেশিরভাগ অর্থই জমা রাখা হয় আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য। এছাড়াও দায়িত্বপ্রাপ্ত কিছু নেতাকর্মীরা নিজেদের পকেট ভারি করে এসব কর্মসূচির মাধ্যমে।

তিনি আরো বলেন, দল থেকে চাঁদার ফি নির্ধারণ করে দেওয়া হবে কেন? সাহায্য-সহযোগিতা যদি হয় যে যার সামর্থ্য মতো দেবে। পুরো বিষয়টাই যেন সাহায্য-সহযোগিতার নামে চাঁদার বাক্স খোলা।

দলের একসময়ের প্রভাবশালী নেতাদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকায় বিএনপির অনেক কেন্দ্রীয় নেতা এখন মানবিক জীবন-যাপন করছেন। সহযোগিতা করার বদলে উল্টো তাদের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করা অমানবিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here