ইট চুরির অভিযোগে গৃহবধূকে গাছে বেঁধে ও চুল কেটে নির্যাতন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নে দুটি ইট চুরির অপবাদ দিয়ে এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন ও চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

রাশিদা বেগম নামের ওই নারী দেয়াড়া ইউপির পাকুড়িয়া গ্রামের ইব্রাহিম গাজীর স্ত্রী।

রোববার রাতে পাকুড়িয়া গ্রামের ভ্যানচালক নেদু রাশিদা বেগমকে দুটি ইট চুরির অভিযোগ দেয়। সোমবার সকালে রাশিদা বেগমকে বাড়ি থেকে ধরে এনে নেদু, তার স্ত্রী, ছেলের বউসহ পরিবারের সদস্যরা গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করে ও চুল কেটে দেয়।

খোরদো ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাশিদা বেগমের প্রতিবেশী আব্দুল মান্নান জানান, নেদু ও তার পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করছে রাশিদা বেগম ইট চুরি করেছে। এরপর রাশিদাকে ধরে নিয়ে বাড়ির নারীরা গাছে বেঁধে চুল কেটে দিয়েছে। চরম অন্যায় করেছে তারা। রাশিদা আমার কাছে এলে, আমি তাকে থানায় অভিযোগ দিতে বলেছিলাম।

কলারোয়া থানার ওসি মীর খায়রুল কবির জানান, এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে রাশিদা বেগম বাদি হয়ে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর মামলা হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here