করোনায় মেয়ের মৃত্যু, সংবাদ শুনে হাসপাতালে মারা গেলেন মা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি:রাজবাড়ী সদর উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মেয়ে আকলিমা খাতুনের (৬০) মৃত্যুর সংবাদ শুনে মারা গেছেন মা আলিয়া বেগমও। মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের রায়নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে একই সঙ্গে তাদের জানাজা ও দাফন করা হয়েছে।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আকলিমা খাতুনের করোনার উপসর্গ দেখা দিলে প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এদিকে আকলিমার মা আলেয়া বেগম করোনার উপসর্গ এবং বার্ধক্যজনিত জটিলতা নিয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার শারীরিক অবস্থা মোটামুটি ভালো ছিল।

এদিকে মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) সকাল ১০টায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। পরে তার মরদেহ রামকান্তপুর ইউনিয়নের রায়নগর গ্রামে নিয়ে আসা হয়। মা আলেয়া তখনো জানতেন না তার মেয়ে আকলিয়া মারা গেছেন। আকলিমার পরিবার তার দাফনের ব্যবস্থা করছিল। ঠিক তখন মেয়ের মৃত্যুর সংবাদ মাকে জানানো হয়। এর কিছু সময় পর আলেয়া স্ট্রোক করে মারা যান। এরপর তার মরদেহটিও বাড়িতে আনা হয়। পাশাপাশি কবরে মা-মেয়েকে দাফন করা হয়।

প্রতিবেশী আল মামুন আরজু বলেন, আকলিমা-মোস্তাক দম্পতির কোনো সন্তান ছিল না। মোস্তাক খুলনায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। চাকরি থেকে অবসর নেয়ার পরে তারা রায়নগর গ্রামে থাকতেন।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রমজান আলী খান জানান, করোনায় আক্রান্ত মেয়ের পরিচর্যা করে মায়ের শরীরেও করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। তিনিও চিকিৎসাধীন ছিলেন। মেয়ের মারা যাওয়ার খবর শুনে মাও মারা গেছেন। পরে একসঙ্গে জানাজা নামাজ শেষে পাশাপাশি কবরে তাদের দাফন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here