বরিশালের আলোকিত মানুষ ইকবাল হোসেন তাপস

 

সাইফুর রহিম,বাবুগঞ্জ : বরিশালের আলোকিত মানুষ বাবুগঞ্জের কৃতি সন্তান বাবুগঞ্জের আলোকিত কণ্ঠ পত্রিকার উপদেষ্টা জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব
সফল উদ্যোক্তা, সমাজ সেবক শিল্পপতি, শিক্ষানুরাগী বরিশাল আধুনিক সাউথ এ্যাপোলো মেডিকেল কলেজ এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাউথ এ্যাপোলো ডায়গনিষ্ট সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাবুগঞ্জ চাঁদ পাশা স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি, চট্টগ্রাম বরিশাল বিভাগীয সমিতির মহাসচিব, বরিশাল জেলা সমিতির সভাপতি
ইকবাল হোসেন তাপস ।

তিনি ১৯৬৫ সালে ২৫ শে জুলাই যশোর জেলার ফাতেমা হাসপাতালে জন্মগ্রহণ করেন।
তাঁর পিতা মোঃ সফিউদ্দিন আহমদ, ( অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ) মাতা জাহানরা বেগম। তাঁরা চার ভাই, এক বোন তিনি সবার বড়।

ইকবাল হোসেন তাপস প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন নিজ গ্ৰামের বাড়ি বরিশাল বাবুগঞ্জ এর চাঁদ পাশা ইউনিয়নের চন্ডিপুর বোর্ড প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে। তিনি ১৯৮১ সালে বাবুগঞ্জ চাঁদপাশা হাই স্কুল থেকে এসএসসি ১৯৮৩ সালে তিনি বরিশাল সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি ১৯৮৭ সালে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি পাস করেন। জাপানে কম্পিউটার সিস্টেম অব ইঞ্জিনিয়ারিং এর উপর উচ্চতরডিগ্রি অর্জন করেন।
শিক্ষাজীবন শেষ করে
১৯৯১ সালে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধশালী করার লক্ষ্য নিয়ে সর্ব প্রথম জাপানের প্রখ্যাত কোম্পানি “মেইজি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড” কে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানোর মধ্য দিয়ে শুরু হয় তাঁর পথ চলা। দীর্ঘ ৭ বছর কোম্পানিটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তিনি ১৯৯৭ সালে বিট্রিশ বিনিয়োগকারীকে আমন্ত্রণ জানান। তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে বিট্রিশ বিনিয়োগকারী চট্টগ্রামে এক্সপার্ট প্রসেসিং জোন বা সিইপিজেড’ এলাকায় বিনিয়োগ করতে সম্মতি হয়। সেখানে ইন্টারকন্টিনেন্টাল টেকনোলজি লি:নামের যৌথভাবে একটি কোম্পানি চালু করে ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
চট্টগ্রামে ইপিজেড-এ গাড়ীর পার্টস তৈরির কারখানা স্থাপন করেন সম্পুর্ণ বিদেশি বিনিয়োগের মাধ্যমে।

বর্তমানে তিনি জাপানিজ “ইয়োকোহামা লেভেলস এন্ড প্রিটিং কোম্পানি লিমিটেড” নামের একটি সারসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। যেটি জাপানের বিখ্যাত “ইতোচু করপোরেশন” এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। এক্সিকিউটিভ ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং কান্ট্রি ডিরেক্টর হিসেবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন ইকবাল হোসেন তাপস।

তিনি নিজের জেলা বরিশালের সাধারণ মানুষের অল্প ব্যয়ে চিকিৎসার জন্য সমমনা কিছু বন্ধুকে নিয়ে ২০১০ সালে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে গড়ে তোলনে ২৫০ শষ্যার আধুনিক বেসরকারি “সাউথ এ্যাপোলো মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল”। প্রতিষ্ঠানটি শুধু চিকিৎসা সেবাই নয়, পাশাপাশি শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখে। ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে এটিকে আন্তর্জাতিক মানের আধুনিক হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তুলতে।
প্রকৌশলী ইকবাল হোসেন তাপস ১৯৮৪ সাল থেকে জাতীয় পার্টির ছাত্র সংগঠন জাতীয় ছাত্র সমাজ রাজনীতিতে সক্রিয় ভাবে জড়িয়ে পড়েন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব এর দায়িত্ব পালন সহ বরিশাল জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব পদে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৮ সালে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন নিয়ে মেয়র পদে প্রাথী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১৯৯৬ সালে প্রতিষ্ঠা করেন বাবুগঞ্জে নিজ ইউনিয়নের হাই স্কুল এবং যে স্কুল থেকে তিনি এসএসসি পাস করেন সেই স্কুলকে কলেজে রুপান্তরিত করেন। তিনি বাবুগঞ্জ চাদপাশা স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে গভর্নিং বডির সভাপতি দায়িত্ব পালন করছেন।
তিনি চট্টগ্রাম বরিশাল বিভাগীয় সমিতির মহাসচিব ও ঢাকাস্থ বরিশাল জেলা সমিতির সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি ১৯৯৬ সালে চট্টগ্রাম ক্লাবের মেম্বার এবং ১৯৯৭ সালে তিনি বরিশাল ক্লাবের আজীবন সদস্য লাভ করেন। ২০১৩ সালে তিনি বারিধারা কসমোপলিটন ক্লাবের স্থায়ী সদস্য পদও অর্জন করেন।
ইকবাল হোসেন তাপস সুদীর্ঘ ২৫ বছর যাবত দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নিরলসভাবে নীরবে কাজ করে যাচ্ছেন। ব্যবসা, শিক্ষা, রাজনীতি কিংবা সমাজ সেবায় রয়েছে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদান।

আমরা জাতীয় এই মেধাবী গুণি আলোকিত সফল শিল্প উদ্যোক্তা ইকবাল হোসেন তাপস এর সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও আগামী দিনের সফলতা কামনা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here